স্বপ্নভঙ্গ সেরেনার, ইউএস ওপেন সেমিতে হার আজারেঙ্কার কাছে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: এবারেও হল না। মার্গারেট কোর্টের রেকর্ড ছুঁতে পারলেন না সেরেনা উইলিয়ামস। ইউএস ওপেনের সেমিফাইনালে পিছিয়ে থেকে সেরেনাকে হারিয়ে দিলেন বেলারুশের ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কা। প্রথম সেটে হেরেও পরেও দুই সেটে দুরন্ত কামব্যাক করলেন তিনি। আজারেঙ্কার পক্ষে ফল ১-৬, ৬-৩, ৬-৩। শনিবার ফাইনালে জাপানের নাওমি ওকুহারার বিরুদ্ধে খেলবেন আজারেঙ্কা।

বৃহস্পতিবার রাতে আর্থার অ্যাশ স্টেডিয়ামে দুই মায়ের লড়াই দেখার অপেক্ষায় বসেছিল টেনিস দুনিয়া। সেই লড়াইয়ের শুরুটা দুরন্ত করেছিলেন সেরেনা। প্রথম সেট সহজেই জিতে যান তিনি। সেরেনার শক্তিশালী ফোরহ্যান্ডের কোনও জবাব ছিল না বেলারুশের টেনিস তারকার কাছে। সবাই ভেবেছিলেন এবার হয়তো সেরেনাকে ফাইনালে ওঠা থেকে আটকাতে পারবে না কেউ। কিন্তু টেনিস দেবতার মনে অন্য কিছুই ছিল।

দ্বিতীয় রাউন্ডে ফিরে আসেন আজারেঙ্কা। নিজের ভুল শুধরে সেরেনার ব্যাকহ্যান্ডে খেলতে থাকেন তিনি। ফলে চাপে পড়ে যান সেরেনা। আনফোর্সড এরর করতে শুরু করেন তিনি। অন্যদিকে নিজের আনফোর্সড এরর কমিয়ে ফেলেন আজারেঙ্কা। বড় র‍্যালি খেলতে সেরেনাকে বাধ্য করেন তিনি। তার ফলেই পয়েন্ট নষ্ট করতে থাকেন সেরেনা। ফলে দ্বিতীয় সেট ৬-৩ ব্যবধানে জিতে যান আজারেঙ্কা। সেই মোমেন্টামই তিনি ধরে রাখেন তৃতীয় সেটেও। ফল সেই একই ৬-৩। এর ফলে ২০১৩ সালের অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জেতার পরে ফের একবার কোনও গ্র্যান্ড স্ল্যামের ফাইনালে খেলবেন আজারেঙ্কা।

ম্যাচ জিতে উঠে দু’বারের গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ী ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কা বলেন, “আশা করি এই বছরটা আমার জন্য ভাল যাবে। এই সুযোগ পাওয়ার জন্য আমি গর্বিত। সেমিফাইনালে একজন চ্যাম্পিয়ন প্লেয়ারের বিরুদ্ধে আমি খেলেছি। আমি জানতাম একটা সুযোগ আমি পাবই। সেই সুযোগকেই আমি কাজে লাগিয়েছি।”

এর আগে ২০১২ সালের ইউএস ওপেনে তৃতীয় সেটে ৫-৩ এগিয়ে থাকা অবস্থায় সেট ও ম্যাচ খোয়াতে হয়েছিল আজারেঙ্কাকে। সেরেনা সেই সেট ৭-৫ জিতে ম্যাচ জিতে যান। সেটা যাতে এদিন না হয় তার জন্য বদ্ধপরিকর ছিলেন আজারেঙ্কা। তাই ম্যাচ পয়েন্টে ১০৯ কিলোমিটার গতিবেগে সার্ভিস করেন তিনি যেটা গোটা ম্যাচে তাঁর দ্রুততম সার্ভিস। এটাই বুঝিয়ে দেয়, ম্যাচ জিততে তিনি কতটা মরিয়া হয়ে উঠেছিলেন।

অন্যদিকে ২৩ গ্র্যান্ড স্ল্যামেই আটকে থাকলেন সেরেনা উইলিয়ামস। ২৪ তম গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতে কিংবদন্তি মার্গারেট কোর্টকে ছোঁয়া এবারেও হল না তাঁর।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More