ভারতীয় বোর্ড যা পারল না, তাই করে দেখাচ্ছে দৃষ্টিহীনদের বোর্ড, দিচ্ছে অক্সিজেন, খাবারও

দ্য ওয়াল ব্যুরো: উদ্দেশ্য সৎ থাকতে হবে, দেওয়ার মনও থাকতে হবে। না হলে অনেক থেকেও কিছুই দেওয়া হবে না!

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ ভারতে এসেছে মাস দুয়েক হতে চলল। কিন্তু এখনও পর্যন্ত ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড কোনও সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেয়নি সাধারণ মানুষের দিকে। আইপিএলের বিভিন্ন ফ্রাঞ্চাইজি দল যে যা পেরেছে, অকাতরে দান করেছে।

করোনাকালে কে কত দিল, সেটি বড় কথা নয়। বরং আন্তরিকতা কে কত দেখাল, সেটাই বিচার্য বিষয়। কিন্তু ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিশ্বের ধনী সংস্থা হয়েও দিনের পর দিন চুপ করে বসে রয়েছে। হাত আর উপুড় করছেন না কর্তারা।

বিসিসিআই যা পারেনি, সেটাই করে দেখাল দেশের ব্লাইন্ড ক্রিকেট সংস্থা। তাদের সংস্থায় এমন কিছু আধিকারিক রয়েছেন, যাঁরা নিজেও দৃষ্টিহীন। কিন্তু নিজেদের অক্ষমতা নয়, বরং লৌহকঠিন মানসিকতা ও দৃঢ়সংকল্প মন নিয়ে তাঁরা করোনা ত্রানে বেরিয়ে পড়েছেন।

ভারতের দৃষ্টিহীন ক্রিকেট বোর্ড ইতিমধ্যে ক্রিকেটকে সরিয়ে রেখে, সাধারণ মানুষকে হাসপাতালের বেডের সন্ধান দেওয়া থেকে শুরু করে ওষুধ, অক্সিজেন কনসেনট্রেটর দিয়ে এক দিকে যেমন সাহায্য করছে। পাশাপাশি রান্না করা খাবার কোভিড আক্রান্ত মানুষের বাড়ি বাড়ি পৌঁছেও দিয়েছেন।

একটি ট্রাস্টের সঙ্গে এই দৃষ্টিহীনদের ক্রিকেট সংস্থা হাত মিলিয়েছে। এই দৃষ্টিহীন ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি জানিয়েছেন, তারা একটি আলাদা টাস্ক ফোর্স গঠন করেছে। ইতিমধ্যেই জোরকদমে কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। লোকের বাড়িতে রান্না করা খাবার পৌঁছে দেওয়ার পাশাপাশি বহু দুঃস্থ পরিবারে রেশনও পৌঁছ দেওয়া হয়েছে।

এ ছাড়াও চিকিৎসার সাহায্যের জন্য বহু ফোন আসছে। সাধ্যমতো পরিষেবা পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা করছে দৃষ্টিহীন ক্রিকেট বোর্ড। প্রায় ৫০ হাজার মানুষ বিভিন্ন ভাবে তাদের দ্বারা উপকৃত হচ্ছেন। এ ছাড়াও প্রথম সারির যোদ্ধাদের জন্যও তারা সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। প্রায় ৬৫ হাজার নিরাপত্তার কিট দেওয়া হয়েছে অঙ্গনওয়াড়ি, পুলিশকর্মী এবং চিকিৎসকদেরও।

 

 

 

Leave a comment

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More