আইপিএলকেই বেশি গুরুত্ব, পিছিয়ে যাচ্ছে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল

দ্য ওয়াল ব্যুরো: টেস্ট ক্রিকেটের আকর্ষণকে যতই বৃদ্ধি করানোর চেষ্টা হোক না কেন, যতই ভারত ও অস্ট্রেলিয়া শেষ টেস্ট নিয়ে মানুষের উন্মাদনা তৈরি হোক, আইপিএল নিয়েই বেশি মাথা ঘামাচ্ছেন ক্রিকেটের কর্তাব্যক্তিরা। আইপিএল যে ভারতীয় বোর্ডের সোনার রাজহাঁস, সেটি না বললেও চলে। এমনকি যেহেতু বিসিসিআই কার্যত আইসিসি-কে পরিচালনা করছে, সেই জন্যই ভারতীয় বোর্ড যা বলবে, সেটাই মেনে নেবে বিশ্ব ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থা।

আইসিসির টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনাল হওয়ার কথা ছিল আগামী ১০ জুন। ম্যাচটি হবে লর্ডসেই, কিন্তু দিনটি পিছিয়ে গিয়ে হচ্ছে ১৮-২২ জুন। করোনার কারণে প্রস্তাবিত অনেকগুলো দ্বিপাক্ষিক সিরিজ আলোর মুখ দেখেনি। এমন অবস্থায় পূর্ব-নির্ধারিত সময়ে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল হবে কি না, এমন প্রশ্ন উঠেছিল। কিন্তু হলেও সেটি আইপিএলের কারণে পিছিয়ে যেতে চলেছে। কেননা আইপিএল এবার নির্ধারিত মে-জুন মাসেই করা হবে বলে জানানো হয়েছে। আর সেটি হবে ভারতেই।

ফাইনালের দিন পিছিয়ে নেওয়ায় ইংল্যান্ডের অবশ্য লাভ হচ্ছে। বর্তমানে পয়েন্টে চারে থাকা ইংল্যান্ড আগামী মাসেই ভারতে টেস্ট সিরিজ খেলবে। পয়েন্টের শতকরা হিসাবে তিনে থাকা অস্ট্রেলিয়ার চেয়ে ০.৫ ব্যবধানে পিছিয়ে ইংল্যান্ড। আর দুইয়ে থাকা নিউজিল্যান্ডের চেয়ে ১.৩ শতাংশ পেছনে ইংল্যান্ড।

এমন অবস্থায় একে থাকা ভারতের মাটিতে যদি প্রয়োজনীয় পয়েন্ট আদায় করতে ব্যর্থ হনও, তবু জো রুটরা শেষ একটা সুযোগ পাবেন। জুনের প্রথম দুই সপ্তাহেই নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ঘরের মাঠে দুটি টেস্ট খেলবে ইংল্যান্ড। নিজেদের পয়েন্ট বাড়ানোর সঙ্গে নিউজিল্যান্ডের পয়েন্ট খোয়ানোর এই সম্ভাবনা ইংল্যান্ডের সুযোগ বাড়িয়ে দিচ্ছে।

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে আপাতত ৪৩০ পয়েন্ট ও সম্ভাব্য পয়েন্টের ৭১.৭ শতাংশ অর্জন করে শীর্ষে রয়েছে বিরাট কোহলির ভারত। ৪২০ পয়েন্ট ও ৭০ শতাংশ নিয়ে দুইয়ে আছে নিউজিল্যান্ড। ৩৩২ পয়েন্ট ও ৬৯.২ শতাংশ পয়েন্ট অর্জন করে তিনে আছে অস্ট্রেলিয়া। পয়েন্টের দিক থেকে অস্ট্রেলিয়ার চেয়ে এগিয়ে আছে ইংল্যান্ড (৪১২)। কিন্তু ম্যাচ বেশি খেলায় শতকরা হারে চারে আছে তারা (৬৮.৭%)।

 

 

 

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More