হাতে চোট পেয়ে হাসপাতালে পন্থ, কিপিং করতে নামলেন ঋদ্ধি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: অস্ট্রেলিয়া সফরে চোট যেন ভারতীয় প্লেয়ারদের সঙ্গী হয়ে গিয়েছে। আগেই চোটের কারণে ইশান্ত শর্মা, মহম্মদ শামি, উমেশ যাদব, লোকেশ রাহুলের মতো ক্রিকেটাররা ছিটকে গিয়েছেন। এবার ব্যাট করতে নেমে হাতে চোট পেলেন ভারতের উইকেট কিপার ঋষভ পন্থ। চোট এতটাই গুরুতর যে আউট হওয়ার পরে তাঁকে নিয়ে ছুটতে হল হাসপাতালে। ফলে দ্বিতীয় ইনিংসে পন্থের জায়গায় উইকেট কিপিং করতে নেমেছেন ঋদ্ধিমান সাহা।

এদিন ব্যাট করার সময় প্যাট কামিংসের একটা বাউন্সার এসে লাগে ঋষভের বাঁ’হাতে। সঙ্গে সঙ্গে হাত চেপে বসে পড়েন তিনি। মাঠে দৌড়ে আসেন ফিজিও। বেশ খানিকক্ষণ তাঁকে দেখা যায় ঋষভের চোট দেখতে। ম্যাজিক স্প্রে করার পরে সাময়িক ব্যথা কমে। ফলে আবার ব্যাট করতে শুরু করেন পন্থ। কিন্তু বেশিক্ষণ ক্রিজে টিকতে পারেননি তিনি। হ্যাজলউডের বলে ওয়ার্নারের হাতে ক্যাচ দিয়ে ৩৬ রানের মাথায় ফিরে যান পন্থ।

আউট হওয়ার পরেই নাকি পন্থকে নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে। বিসিসিআইয়ের তরফে টুইট করে জানানো হয়, ঋষভ পন্থের চোট কতটা গুরুতর তা জানার জন্য তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সেখানে স্ক্যান হবে পন্থের। স্ক্যানের রিপোর্ট পাওয়ার পরেই জানা যাবে চলতি টেস্টে তিনি আর খেলতে পারবেন কিনা।

পন্থ চোট পাওয়ায় দ্বিতীয় ইনিংসে দেখা যায় কিপিং গ্লাভস পরে মাঠে নামছেন ঋদ্ধিমান সাহা। দেখে মনে হচ্ছে দ্বিতীয় ইনিংসের উইকেটের পিছনে তাঁকেই দেখা যাবে। কিন্তু পন্থের চোট গুরুতর হলে ঋদ্ধি ব্যাট করতে পারবেন কিনা তার নিশ্চয়তা এখনও নেই। কারণ কনকাশন পরিবর্ত হলে ঋদ্ধির খেলতে কোনও সমস্যা হত না। সেক্ষেত্রে মাথায় বল লাগতে হয়। কিন্তু এক্ষেত্রে তো হাতে চোট পেয়েছেন পন্থ। তাই দ্বিতীয় ইনিংসে কী হবে সেটা অবশ্য সময়ই বলবে।

এমনিতেই গত টেস্ট থেকে পন্থের উইকেট কিপিংয়ের সমালোচনা শুরু হয়েছে। বেশ কিছু সুযোগ নষ্ট করেছেন তিনি। যেগুলো হয়তো ঋদ্ধি থাকলে হত না। তাই দস্তানা হাতে ঋদ্ধিকে দেখে অনেকেই হাঁফ ছেড়ে বেঁচেছেন। কারণ দ্বিতীয় ইনিংসে হয়তো উইকেটের পিছনে কোনও ভুল দেখা যাবে না।

এর মধ্যেই আবার ব্যাট করার সময় আঙুলে চোট পেয়েছেন জাদেজাও। তাঁকেও স্ক্যানের জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তার ফলে দ্বিতীয় ইনিংসে এখনও বল করতে পারেননি জাড্ডু। প্রথম ইনিংসে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং লাইনআপকে তিনিই ভেঙেছিলেন। ব্যাট হাতেও সমান কার্যকর তিনি। আর তাঁর মাঠে থাকা মানে অদ্ভুত কিছু ক্যাচ, রানআউটের দর্শন। তাই তাঁর চোট যেন গুরুতর না হয় সেই প্রার্থনায় করছে ভারতীয় ম্যানেজমেন্ট থেকে শুরু করে সমর্থকরা।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More