বিতর্কের মধ্যেই ড্যানিশ তারকাকে ছাড়াই মালদ্বীপে খেলতে গেল এটিকে-মোহনবাগান

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো: এএফসি কাপ খেলতে মালদ্বীপে পৌঁছে গেল এটিকে-মোহনবাগান দল। এদিন সকালে দলের ফুটবলাররা রওনা হয়েছিলেন। এএফসি কাপে ভাল ফল করতে মরিয়া হয়ে রয়েছে অন্তোনিও লোপেজ হাবাস ব্রিগেড।

সব থেকে বড় কথা, এটিকে-মোহনবাগান দল বিদেশে রওনা হল, অথচ সমর্থকরা কেউই বিমানবন্দরে ছিলেন না। একটি ফ্যান ক্লাবের বেশকিছু সদস্য থাকলেও তাঁরাও শেষমেশ চলে যান। সমর্থকদের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, দল খেলতে গেল মালদ্বীপে, অথচ ঐতিহ্যবাহী মোহনবাগানের জার্সি পরেননি। তারা লাল রংয়ের একটি জার্সি পরেছে, যা ক্লাবের গরিমাকে আঘাত করেছে।

প্রায় দু’ সপ্তাহ অনুশীলনের পর এ এফ সি কাপের ম্যাচ খেলতে শনিবার ভোরের বিমানে‌ মালদ্বীপ গেল এটিকে মোহনবাগান। নিজের দর্শন মেনেই আন্তোনিও লোপেজ হাবাস পুরো অনুশীলনই করিয়েছেন ক্লোজ ডোরে। রয় কৃষ্ণ, প্রীতম কোটালদের শারীরিক সক্ষমতা বাড়ানোর উপর জোর দিয়েছেন হাবাস। পাশাপাশি তিনি পজেশনাল ফুটবল, পাসিং, পেনাল্টি মারারও অনুশীলন করিয়েছেন।

এ দিকে দলের সঙ্গে পরে যোগ দিলেও ডেভিড উইলিয়ামস কোচ হাবাস নিয়ে গিয়েছেন তাঁকে। যাননি ডেনমার্কের তারকা কাউকো, তিনি জাতীয় দলের হয়ে খেলতে যাবেন এইসময়ে। যদিও তিনি প্র্যাকটিস করেছেন দলের সঙ্গে। মোট ২৪ সদস্যের দল গিয়েছে এএফসি কাপ খেলতে।

রওনা হওয়ার আগে তারকা রয় কৃষ্ণ বলেছেন, ‘‘জীবনে প্রথম বার এফসি কাপ খেলব। ক্লাবকে এশিয়ার মধ্যে জনপ্রিয় করার সুবর্ণ সুযোগ রয়েছে আমাদের সামনে। প্রতিপক্ষ দল সম্পর্কে কোনও কিছু আপাতত ভাবছি না। আমরা নিজেদের সম্পর্কে বেশি ভাবছি। আমরা আশাবাদী ভাল ফল করার বিষয়ে। আমাদের প্রথম লক্ষ্য হল পরের পর্বে যাওয়া।’’

হুগো বৌমাস আবার বলেছেন, ‘‘ভারতের একটি ক্লাবের জার্সি পরে আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট খেলতে যাচ্ছি, এটা ভেবেই নিজে গর্ববোধ করছি। সবুজ মেরুন জার্সি পরে মাঠে নামার জন্য মুখিয়ে রয়েছি। যে কোনও টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচ খুব গুরুত্বপূর্ণ হয়। এটা জিততে পারলে পরের পর্বের এগিয়ে যাওয়াটা অনেক সহজ হবে।’’

এই বিদেশী ফুটবলার যাই বলুন না কেন, জার্সি বিতর্ক ফের মাথা চাড়া দিল এটিকে-মোহনবাগান শিবিরে।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.