বাড়ি চলে গেলেন রয় কৃষ্ণরা, কলকাতা লিগ খেলবে না এটিকে-মোহনবাগান

1

দ্য ওয়াল ব্যুরো: আইএফএ সচিব যতই কলকাতার দু’প্রধানকে নিয়ে সূচি বানান না কেন, তাঁর সেই আশা পূরণ হচ্ছে না। কারণ এটিকে-মোহনবাগান কলকাতা প্রিমিয়ার লিগ খেলতে চায় না, তাদের সেরকমই মত। সেই জন্যই এএফসি কাপ খেলার পরে কোচ হাবাসসহ দলের বাকি বিদেশীরাও দেশে ফিরে গেলেন।

এএফসি কাপের নকআউট রাউন্ড শুরু হবে ২২ সেপ্টেম্বর থেকে। তার আগে ফের দলের ফুটবলাররা একসঙ্গে হবেন। তার মধ্যে আবার দলের সাত ফুটবলার ইগর স্টিম্যাশের ভারতীয় শিবিরে যোগ দেবেন। বাকি স্থানীয় ফুটবলাররা বাড়ি চলে যাবেন। হাবাস জানিয়ে দিয়েছেন, ফের ৭ সেপ্টেম্বর থেকে দলের শিবির শুরু হবে।

কলকাতা লিগে এটিকে-মোহনবাগানের প্রথম ম্যাচ ছিল ২৯ অগাস্ট। শোনা যাচ্ছে, মঙ্গলবার রাতেই সবুজ মেরুনের এক শীর্ষ কর্তা আইএফএ সচিবকে ফোন করে জানিয়ে দিয়েছেন, তারা কলকাতা লিগে খেলবে না।

ডুরান্ডে যে সবুজ-মেরুন ব্রিগেড অংশ নিচ্ছে না, সে কথা আগেই পরিষ্কার হয়ে গিয়েছিল। এ বার জানা গিয়েছে, কলকাতা লিগেও তারা অংশ নেবে না। এর পিছনে তারা ৩টি যুক্তি দিয়েছে। এক, লিগ কিংবা ডুরান্ডে বায়ো-বাবল সিস্টেম নেই, সেই কারণে ফুটবলাররা কেউই সেই ঝুঁকি নিতে চাইছেন না।

দ্বিতীয়ত, দলের নিয়মিত সাত ফুটবলার ভারতীয় শিবিরে চলে যাওয়ায় দল দুর্বল হয়ে গিয়েছে। এমতাবস্থায় দল খেলে হারলে সমর্থকরা সেই কথা মানবেন না। দল হারলেই বিতর্ক বাঁধবে। শেষটি, এএফসি কাপের প্রস্তুতির কথা ভেবেই এটিকে-মোহনবাগান লিগে অংশ নিতে চাইছে না।

তারপরেও আশা হারাচ্ছে না আইএফএ। সচিব জয়দীপ মুখোপাধ্যায় বলেছেন, ‘‘বড় দলের এত বায়নাক্কা ভাল লাগে না। এটিকে মোহনবাগান বলেছিল ছ’জন নতুন বিদেশী সই করাবে, সেটি করতে রাজি ছিলাম। এমনকি এএফসি কাপের সময় ম্যাচ রাখিনি, তারপরেও যদি না খেলে আমাদের করণীয় কিছু নেই।’’

 

 

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.