কবে আবার মাঠে নামবে এটিকে-মোহনবাগান? জটিলতা অব্যাহত

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো: আইএসএলের দ্বিতীয় পর্বে এসে ঝামেলায় পড়ে গিয়েছে এটিকে মোহনবাগান। তারা আবার কবে মাঠে নামবে, সেই নিয়ে কারোরই কোনও ধারণা নেই। একটা অদ্ভুত সঙ্কটের মধ্যে দাঁড়িয়ে রয়েছে বাগান শিবির। দলে একাধিক ফুটবলারের রিপোর্ট করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে, যে কারণে পুরো দল রয়েছে কোয়ারেন্টিনে।

এমনিতেই দলের প্রস্তুতি বন্ধ হয়ে গিয়েছে এই পরিস্থিতিতে। সব ফুটবলারই ঘরবন্দী জীবন অতিবাহিত করছেন। প্রথমে বলা হয়েছিল, রয় কৃষ্ণ ও সন্দেশের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। কিন্তু বাগান শিবিরে খোঁজ নিয়ে জানা গিয়েছে, অনেকেই সংক্রমিত। আইএসএলের তরফ থেকে নাম প্রকাশ করা হচ্ছে না, তাতে আরও বিভ্রান্তি তৈরি হবে।

রবিবার থেকে টানা তিনদিনের ঘরবন্দী জীবন চলছে সবুজ মেরুন শিবিরে। বর্তমানে এটিকে মোহনবাগানের কোনও ফুটবলার লাঞ্চ কিংবা ডিনারে বাইরে এসে সারতে পারছেন না। তাদের ঘরের বাইরে থেকে কেউ নক করলে ঘর খোলা হচ্ছে, তার মধ্যেই খাবার সরবরাহ করে যাচ্ছেন হোটেল কর্মীরা।

ঠিক হয়েছে, আগামী তিনদিন দলের প্রতিটি ফুটবলারের আরটিপিসিআর টেস্ট করা হবে। তার মধ্যে যদি দেখা যায়, ১৫জন ফুটবলারের রিপোর্ট নেগেটিভ, তাদের অন্যত্র সরিয়ে ম্যাচ খেলানোর ব্যবস্থা হবে। আর দেখা যায় যদি একাধিক ফুটবলার এখনও আক্রান্ত, তা হলে বাকি দলের থেকে ফুটবলার নিয়ে দলগঠন সেরে মাঠে নামতে হবে। পরিস্থিতি জটিল মানছেন দলের এক ফুটবলার। তিনি জানালেন, জানি না মাঠে আবার কবে নামতে পারব। ঘরে থেকেই হালকা ব্যায়াম করতে হচ্ছে, আর কিছু করার নেই, কতক্ষণ আর টিভি দেখে সময় কাটানো যায়!

আইএসএলের আয়োজক এফএসডিএল জানিয়ে দিয়েছে, পুরো স্বাস্থ্যবিধি মেনেই চলতে হবে সব দলকে। এমনিতেই বায়ো বাবলের মধ্যে লিগ চলছে। সেই পরিস্থিতিতে কী করে করোনা সংক্রমণ হল, সেটাই রহস্যের। মনে করা হচ্ছে, সন্দেশ জিঙ্ঘানের ক্ষেত্রে কোয়ারেন্টিন নিয়ম মানা হয়নি, তিনি ইউরোপ থেকে এসেই কী করে শিবিরে চলে এলেন, সেটিও বড় প্রশ্ন।

 

 

 

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.