তালিবানের দখলে ক্রিকেট বোর্ড, আইসিসি নিষিদ্ধ করতে পারে আফগানিস্তানকে

1

দ্য ওয়াল ব্যুরো: টোয়েন্টি ২০ বিশ্বকাপের (Twenty 20) আগে বাতিল হতে পারে আফগানিস্তান (Afghanistan) ক্রিকেট বোর্ড। আইসিসি-র (ICC) কোপে পড়তে পারে তারা। কারণ তালিবান (Taliban) প্রশাসন আফগান বোর্ড দখল করেছে, এটা ভাল চোখে দেখছে বিশ্ব ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থা। তাদের সংবিধানেই রয়েছে, রাজনৈতিক প্রভাব যদি কোনও বোর্ডের ওপর পড়ে, সেক্ষেত্রে তাদের বাতিল করতে পারে।

গত মাসে আফগানিস্তানের রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা দখল করেছে তালিবান। ক্ষমতায় এসেই তারা মহিলা ক্রিকেট দলের ওপর ফতোয়া জারি করেছে। বলে দিয়েছে, মহিলারা কোনওভাবেই প্রকাশ্যে আসতে পারবেন না। তারা এমন পোষাক পরতে পারবেন না যাতে তাদের শরীর বেরিয়ে থাকে।

আইসিসি জানিয়েছিল, মহিলা দলকে বিলুপ্ত করে দেওয়া হলে ছেলেদের ক্রিকেট দলকেও নিষিদ্ধ করবে তারা। এমনকি রাজনৈতিক প্রভাব দলের ওপর পড়ছে, এটিও বড় বিষয়।

আরও পড়ুন: কলকাতার দেবরূপ নেদারল্যান্ডসের জার্সি গায়ে নামছেন, হাতেখড়ি হয়েছিল সম্বরণের অ্যাকাডেমিতে

আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান কার্য নির্বাহী হামিদ শিনওয়ারিকে সরিয়ে দিয়েছে তালিবান। তাঁর পরিবর্তে এসেছেন নাসিবউল্লাহ খানকে। যিনি তালিবানের ঘনিষ্ঠ।

ক্রিকেট বোর্ডে এমন পালাবদলের পর আফগানিস্তানের নিষিদ্ধ হওয়ার সম্ভাবনা আরও বেড়ে গিয়েছে বলে জানাচ্ছে ব্রিটিশের নামী দৈনিক দ্য টেলিগ্রাফ। তাদের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আফগানিস্তান যদি তালিবানের অধীনে বিশ্বকাপ খেলতে চায়, তাহলে হয়তো তাদের আটকে দেওয়া হবে।

আফগানিস্তান ক্রিকেটের সাম্প্রতিক ঘটনাবলির বিষয়ে জরুরি সভা ডাকতে পারে আইসিসি। সেই সভায় ভোটের মাধ্যমে আফগান দলকে নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্তও আসতে পারে। তবে এখনও পর্যন্ত আইসিসির অ্যাপেক্স বডির ভাবনা হল, রশিদ খান, মহম্মদ নবিরা আগের মতো আফগানিস্তানের পতাকা নিয়েই খেলবেন। আর তা হলে বিশ্বকাপে অংশ নিতেও আর কোনও বাধা থাকবে না। প্রসঙ্গত, বিশ্বকাপের সুপার-১২ এ আফগানিস্তানের গ্রুপে রয়েছে ভারত, নিউজিল্যান্ড, পাকিস্তান ও বাছাই থেকে আসা দুইটি দল।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.