আফ্রিকান সাফারিতে ব্যর্থতার বৃত্তে মিললেন ক্রিকেটার থেকে কোচ হওয়া দ্রাবিড়

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো: অধিনায়ক হিসেবে যা পারেননি, সেটাই পারলেন না কোচ হিসেবেও। ১৫ বছর আগে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে রাহুল দ্রাবিড়ের অধিনায়কত্বে ভারতীয় দল প্রথম টেস্ট জিতেও সিরিজে হার মানে ১-২ ব্যবধানে।

সেই ইতিহাস ফিরল শুক্রবার মকর সংক্রান্তির দিন কেপ টাউনের মাঠে। কোচ হিসেবে সেই একই ব্যবধানে হারল তাঁর দল প্রোটিয়াদের কাছে। এবারও সেঞ্চুরিয়নে সিরিজে জয় দিয়ে শুরু করেছিল টিম কোহলি। পরের টেস্টে তিনি না খেললেও দল হারে জো বার্গ টেস্টে।

ঘরের মাঠে জেতা, আর বিদেশের মাঠে টেস্টে হার, তাও আবার সেটি কোনও লড়াইবিহীন, সেটি কোচ দ্রাবিড়ের পক্ষে ভাল বিজ্ঞাপন নয়। কিন্তু ভারতীয় দলের হারের কারণ হিসেবে উঠে আসছে বেশ কয়েকটি কারণ।

প্রথমত, দলের ব্যাটিং ব্যর্থতা। প্রথম ইনিংসে ভারত করে ২২৩ রান, দ্বিতীয় ইনিংসে শেষ হয়ে যায় ১৯৮ রানে। চেতেশ্বর পূজারা ও অজিঙ্ক্যা রাহানে হয়তো ভারতের হয়ে শেষ টেস্টে খেলে ফেললেন। তাঁরা ব্যর্থ হলেন টানা।

রাহানে ৬ ইনিংসে ১৩৬ রান করেছেন এবং পূজারা এই সফরে ৬ ইনিংসে মাত্র ১২৪ রান করেছেন। কোহলিও যে দারুণ ছন্দে বলা যাবে না। তাঁর ব্যাটে সেঞ্চুরি নেই দু’বছর। তাও এই সফরে ৪০-র ওপর গড় রয়েছে তাঁর।

ভারতীয় দলের বোলিং ভাল হলেও দ্বিতীয় ইনিংসে চাপের মুখে দিশা হারিয়েছেন শামি, বুমরারা। না হলে শেষ টেস্টে প্রোটিয়াদের দ্বিতীয় ইনিংসে কিছুই করে উঠতে পারেননি বোলাররা। দলের লোয়ার অর্ডার ব্যাটিংও ভাল মানের হয়নি।

দল নির্বাচনে গলদ ছিল। রাহানে ও পূজারা খেলে গেলেও শ্রেয়স ও হনুমাকে সুযোগ দেওয়া হল না। মায়াঙ্কের বদলে গিল কিংবা বাংলার অভিমন্যু ঈশ্বরণ কেন এলেন না, সেই প্রশ্নও উঠছে।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.