ব্রোঞ্জ জিতে থামছে না সিন্ধুর দৌড়, প্যারিস অলিম্পিকে রং বদলাবে কি পদকের

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দেশের একমাত্র মহিলা ক্রীড়াবিদ হিসেবে অলিম্পিকে দলগত ও ব্যক্তিগত বিভাগ মিলিয়ে দু’টি পদক জিতে নজির গড়েছেন পিভি সিন্ধু। পুরুষদের মধ্যে ব্যক্তিগত বিভাগে তাঁর আগে একমাত্র সুশীল কুমার দু’টি অলিম্পিক পদক জিতেছিলেন। স্বভাবতই একের পর এক অভিনন্দন বার্তায় ভেসে যাচ্ছেন ভারতের এই চ্যাম্পিয়ন শাটলার।

এবার পাল্টা টুইট করে সমস্ত অনুরাগীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করলেন সিন্ধু। সেইসঙ্গে জানালেন টোকিওর ব্রোঞ্জ দিয়েই তাঁর এই যাত্রাপথ শেষ হচ্ছে না। বার্তা দিলেন, ২০২৪ সাংর প্যারিস অলিম্পিকে পদকের রঙ বদলে সোনালি করার জন্য তিনি এখন থেকেই প্রস্তুতি শুরু করে দেবেন।

অনুরাগী এবং সমর্থকদের ধন্যবাদ জানিয়ে হায়দ্রাবাদি কন্যা সিন্ধু বলেন, “আমি প্রতিটা শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন বার্তা হৃদয় দিয়ে গ্রহণ করছি। এই অলিম্পিক পদক আমার কাছে সমস্ত কিছু, কারণ এর মাধ্যমে আমি দেশের প্রতিনিধিত্ব করেছি।” এই সাফল্যের কৃতিত্ব একা নেননি সিন্ধু, বরং তিনি এই সাফল্যকে দলগত প্রয়াস হিসেবে চিহ্নিত করেন। এই প্রসঙ্গে বলেন, “এই সাফল্য মোটেও আমার একার নয়। গত পাঁচ বছর ধরে যাঁরা আমার পাশে থেকে আমাকে অনুপ্রাণিত করেছেন তাদের সকলকে ধন্যবাদ, এই সাফল্য তাদের সবার।”

সিন্ধু জানিয়েছেন, পরপর দু’বার অলিম্পিকে পদক জেতার অনুভূতি এক কথায় প্রকাশ করতে পারছেন না। রবিবার চিনের হে বিং জিয়াও’কে ২১-১৩, ২১-১৫ স্ট্রেট সেটে হারিয়ে ব্রোঞ্জ জেতার পর আনন্দে বিহ্বল হয়ে পড়েছিলেন সিন্ধু। তার সেই ঘোর যে এখনও কাটেনি তা স্পষ্ট।

২০১৬-র রিও অলিম্পিকে পিভি সিন্ধু প্রথমবার রুপো জিতেছিলেন। এবারের টোকিও অলিম্পিকে ফাইনালে উঠতে না পারলেও তিনি ব্রোঞ্জ জিতে ফের একবার দেশের মুখ উজ্জ্বল করেছেন। পরপর দুটি অলিম্পিক পদক জিতে তিনি অত্যন্ত খুশি হলেও অলিম্পিক সোনা যে তার মূল লক্ষ্য সেটা ওই ট্যুইট বার্তাতেই বুঝিয়ে দিয়েছেন।

এই প্রসঙ্গে তাৎপর্যপূর্ণভাবে সিন্ধু বলেন, “এখানেই আমার দৌড় থেমে যাচ্ছে না।” বার্তা পরিষ্কার, ২০২৪ এর প্যারিস অলিম্পিকে পদক এর রঙ বদলানোর জন্য এখন থেকেই প্রস্তুতি শুরু করে দেবেন তিনি। সবকিছু বিবেচনা করে বলাই যায় ভারতীয় ক্রীড়া জগতে ‘সিন্ধু যুগ’ আরও বেশ কিছুদিন দেখা যাবে!

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.