দু’দিন আগেই ‘গুন্ডামি’ করেছেন রাহুল দ্রাবিড়, তাঁকে নিয়েই কোভিড-সচেতনতা প্রচার মুম্বই পুলিশের

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ‘ইন্দিরানগর কা গুন্ডা’… দুনিয়ার অন্যতম সজ্জন ক্রিকেটার রাহুল দ্রাবিড়ের নয়া অবতার। নেপথ্যে একটি ক্রেডিট কার্ডের বিজ্ঞাপন। যেখানে ট্রাফিক জ্যামে আটকে গিয়ে মেজাজ হারানো ‘জ্যমি’র ভিডিও ইতিমধ্যে ভাইরাল হয়েছে। দেদারে ছড়াচ্ছে মিম, চটুল জোক। স্রেফ নেটিজেনরাই নন, দ্রাবিড়কে নিয়ে মজার ছবি বানাচ্ছে জোম্যাটো, স্যুইগির মতো সংস্থাও। আর এবার সেই লিস্টিতে নাম লেখালো মুম্বই পুলিশ।

যদিও শুধুমাত্র মনোরঞ্জনের উদ্দেশ্যে মিম বানানো নয়, কোভিড-দুর্যোগে আমজনতার হুঁশ ফেরাতে দ্রাবিড়ের স্মরণাপন্ন হয়েছে তারা। কীভাবে?

একটি ছবিতে বিজ্ঞাপনের ভিডিও-র কয়েকটি স্টিল বেছে নেওয়া হয়েছে। যেখানে ব্যাট হাতে রীতিমতো রণং দেহি মেজাজে রয়েছেন দ্রাবিড়। ভেঙে ফেলছেন পাশের গাড়ির রিয়ার উইন্ডো থেকে কাচ। আর তারপর গাড়ির বনেটে চড়ে সোল্লাসে ঘোষণা করছেন, ‘ইন্দিরানগর কা গুন্ডা হুঁ ম্যায়…’

এই ছবির কোলাজগুলো পরপর জুড়ে মুম্বই পুলিশ টুইট করে, ‘করোনা ভাইরাসকে দেখার পর মাস্কের প্রতিক্রিয়া…’ অর্থাৎ, মাস্ক পরলে সংক্রমণ ছোঁয়াচ থেকে রক্ষা মিলবে—পথচলতি জনতার কানে এই বার্তাই ঠারেঠোরে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।

একইভাবে এই মডেল অনুসরণ করেছে সুরাত পুলিশও। তবে রয়েছে হাল্কা মোচড়। এখানে আকছার ঘটে চলা পথের ঝঞ্ঝাট এড়াতে দ্রাবিড়-কে অনুসরণের পরামর্শ দেওয়া হয়নি। তারা টুইটারে ব্যাট হাতে আগ্রাসী দ্রাবিড়ের ছবি পোস্ট করে পাশে লিখেছে, ‘রাস্তা ইন্দিরানগরের হোক কী সুরাতের… ‘গুন্ডাগিরি’ কখনওই বরদাস্ত করা হবে না।’

অন্যদিকে নাগপুর পুলিশের বার্তা, ‘ইন্দিরানগর কিংবা অন্য জায়গা… যাই হোক না কেন, ধৈর্য বজায় রাখুন। অযথা হর্ন দেওয়া থেকে বিরত থাকুন।’ ঠিক এর পাশেই পোস্ট করা হয়েছে হর্ন বাজিয়ে চলা দ্রাবিড়ের বিরক্তিভরা মুখের ছবি।

সচেতনামূলক ছবির পাশাপাশি চটুল মিমও নেটদুনিয়ায় সাড়া ফেলেছে। সেই তালিকায় রয়েছে জোম্যাটো। সংস্থার তরফে গত শুক্রবার পোস্ট করা হয়, ‘আজ ইন্দিরানগরে খাবার ডেলিভারি দিতে কিছুটা দেরি হতে পারে। কারণ সেখানকার এক গুন্ডা নাকি ব্যাট হাতে রাস্তা দাপিয়ে বেড়াচ্ছে!’

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.