বিকিনি না পরার ফাইন ১৫০০ ইউরো! নিয়ম ভেঙে সাজা পেলেন নরওয়ের এই মহিলা খেলোয়াড়রা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বিকিনি পরে শরীর দেখাব না। ছোট প্যান্টি পরে লজ্জা-সম্ভ্রমের খোলামেলা প্রদর্শনে রাজি ছিলেন না মহিলা হ্যান্ডবল খেলোয়াড়রা। তাই আন্তর্জাতিক ফেডারেশনের নিয়ম ভেঙে নিজেদের মর্জি মতো পোশাকে বদল করেন তাঁরা। সেই পোশাকেই ম্যাচ খেলেন। আর তাতেই বেজায় খাপ্পা ইউরোপীয় হ্যান্ডবল ফেডারেশন। মোটা অঙ্কের টাকা জরিমানাও করা হয়েছে প্রতিজন মহিলা খেলোয়াড়কে।

নিয়ম ভাঙার ‘শাস্তি’ নরওয়ের মহিলা বিচ হ্যান্ডবল টিমের খেলোয়াড়রা। নরওয়ে হ্যান্ডবল ফেডারেশন (এনএইচএফ) জানিয়েছে, তাদের টিমের খেলোয়াড়রা নিয়ম অমান্য করে বিকিনি বটমের বদলে শর্টস পরে খেলতে নেমেছিলেন। সে জন্যই জরিমানা করেছে ইউরোপীয় হ্যান্ডবল ফেডারেশন। প্রতিজন মহিলা খেলোয়ারকে ১৫০ ইউরো করে গোটা টিমকে মোট ১৫০০ ইউরো জরিমানা দিতে হবে। ভারতীয় টাকায় হিসেব করলে দাঁড়ায় এক লাখ ৩০ হাজারেরও বেশি। নরওয়ের ফেডারেশনই এই জরিমানার টাকা দিয়ে দেবে বলে জানা গেছে।

Norway's Beach Handball Team Fined For Not Wearing Bikini Bottoms

সব খেলাতেই নির্দিষ্ট পোশাক বিধি থাকে। হ্যান্ডবলেও তাই। আন্তর্জাতিক হ্যান্ডবল ফেডারেশন এই নিয়ম চালু করেছে। মহিলাদের পোশাক হল স্পোর্টস ব্রা এবং তার সঙ্গে বিকিনি বটম। এই বিকিনি বটম নিয়ে বরাবরই আপত্তি তুলেছিলেন মহিলা খেলোয়াড়রা। বিকিনি বটম সাধারণ প্যান্টির থেকে আরও কিছুটা ছোট, আঁটোসাঁটো। কোমর থেকে চার ইঞ্চির বেশি নয়। তাছাড়া দুপায়ের নীচের দিক থেকে ও দুই পাশে কাটা। মহিলাদের গোপন জায়গায় আব্রু অনেকটাই উন্মোচিত থাকে এই পোশাকে। আর হ্যান্ডবল খেলা মানে অনেক বেশি শারীরিক কসরৎ করতে হয়। সেখানে বহু মানুষের সামনে বিকিনি বটম পরা মানে নিজেকে সেইভাবে সতর্কও রাখতে হয়। কিন্তু পুরুষদের পোশাকে সেই চিন্তা নেই। পুরুষরা শর্টস পরেই নামতে পারেন যার ঝুল হাঁটু থেকে চার ইঞ্চি কম।

Norway women's beach handball team fined for wearing shorts

পোশাকের এই বৈষম্যেই আপত্তি তুলেছেন নরওয়ের মহিলা হ্যান্ডবল টিমের খেলোয়াড়রা। তাঁদের বক্তব্য, শরীরের অনেকটাই খোলা রেখে প্রদর্শন করার কোনও মানেই হয় না। তাছাড়া এখন যেভাবে বডি শেমিং করা হচ্ছে চারদিকে, সেখানে খেলার সময় বিকিনি বটম পরা মানে, শরীরের লজ্জা নিয়ে অনেক বেশি সমালোচনার মুখে পড়া। আন্তর্জাতিক ফেডারেশনে এই অভিযোগ জানিয়েও লাভ না হওয়ায়, শেষে নিয়ম ভেঙেই শর্টস পরে মাঠে নামেন মহিলা খেলোয়াড়রা। আর তাতেই ফাইন দিতে হচ্ছে তাঁদের।

খেলার মাঠে নিয়ম ভাঙলে সাজা পেতেই হয়, কিন্তু এই সাজায় বিন্দুমাত্র বিচলিত নয় নরওয়ের হ্যান্ডবল ফেডারেশন। টিম কর্তৃপক্ষরা বরং গর্বিত, মহিলাদের এমন অভিনব প্রতিবাদে। এই লড়াইয়ে তাঁরা মহিলা খেলোয়াড়দের পাশে থাকবেন বলেই আশ্বাস দিয়েছেন।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More