মহামেডানের কোচ হওয়ার দৌড়ে আচমকা এগিয়ে এলেন ভিকুনা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: তিনি মোহনবাগানের কোচিং করানোর সময়ই বলেছিলেন, কলকাতা তাঁর সেকেন্ড হোম। কলকাতার প্রতি তাঁর একটা আবেগ রয়েছে। সেটি ফের বোঝাতে চলেছেন কিবু ভিকুনা।

মোহনবাগানের আই লিগ জয়ী কোচ আবারও কলকাতায় ফিরতে পারেন। তাঁকে মহামেডান ক্লাবের পক্ষ থেকে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। সবকিছু ঠিক থাকলে চলতি মরসুমে তিনি মহামেডানের হেডস্যার হতেই পারেন।

গতবার তিনি ছিলেন কেরালা ব্লাস্টার্সের কোচ। কিন্তু ভিকুনা সফল হননি। পরে জানিয়েছিলেন, তিনি সেই ভাবে স্বাধীনতা পাননি। তারপর একবার কলকাতায় এসে মোহনবাগান তাঁবুতে ঘুরে যান সস্ত্রীক। দেখে গিয়েছিলেন আই লিগ জয়ী ট্রফি। সেইসময়ই মহামেডান কর্তাদের সঙ্গে কথা বলে গিয়েছিলেন। জানিয়ে যান, পরের মরসুমে তাঁর কথা ভাবতে পারেন তাঁরা।

মহামেডান কর্তাদের অনেক স্বপ্ন ছিল এবারে হয়তো তারা আই লিগ চ্যাম্পিয়ন হয়ে আইএসএলে খেলার সুযোগ পাবে। তা হয়নি শেষমেশ। তাদের কোচ হিসেবে শঙ্করলাল চক্রবর্তী সফল হননি। শঙ্করলাল ইয়েসম্যান কোচ, তিনি ছকবদল ভাবতেই পারেন না। এমনকি তার আগে যিনি ছিলেন, সেই স্প্যানিশ কোচ জোসে হাভিয়ার প্রতিও ভরসা নেই কর্তাদের।

মহামেডানের প্রশাসনিক রদবদল হয়েছে। ক্লাব সচিব দানিশ ইকবাল জানিয়েছেন, আমরা ভিকুনা ছাড়াও কথা বলেছি কাশ্মীরের কোচ ডেভিড রবার্টসনের সঙ্গেও। চলতি মাসের শেষে এই নিয়ে আমরা সিদ্ধান্ত নিতে পারব।

মহামেডান কর্তাদের পরিকল্পনা, এবার কোনও হেভিওয়েট কোচ আনা। কারণ সমর্থকদের চাপ, বড় দলকে সামলানোর মতো বিষয় শঙ্করলালদের মতো কাউকে আনলে হবে না, সেটি বুঝে গিয়েছেন কর্তারা। তাই ভিকুনাকে আনতে চান কোটি টাকা খরচ করেই। এমনকি ভিকুনা যদি একান্ত না হয়, তা হলে রিয়াল কাশ্মীরের রবার্টসনকে আনার ভাবনা রয়েছে তাদের।

নয়া কোচ ঠিক হলেই তাঁর অধিনে নতুন ফুটবলারদের নিয়োগ করা হবে বলে জানানো হয়েছে ক্লাবের তরফে। ভিকুনার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনিও জানিয়েছেন, মহামেডানের সঙ্গে কথা হয়েছে আমার, তবে সবটাই প্রাথমিক স্তরে রয়েছে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More