হোয়াইটওয়াশ হল না, সিরিজের শেষ ম্যাচে হার ধাওয়ানদের, জিতে মুখরক্ষা শ্রীলঙ্কার

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ভারতীয় দল হোয়াইটওয়াশ করতে পারল না শ্রীলঙ্কাকে। ঘরের মাঠে শেষ ম্যাচে শিখর ধাওয়ানের দল হার মেনেছে তিন উইকেটে। আবিস্কা ফার্নান্ডো এবং রাজাপাক্ষার অনবদ্য ইনিংসের সুবাদে শ্রীলঙ্কার জয় ও সেইসঙ্গে মুখরক্ষাও। যার ফলে ৩ ম্যাচের সিরিজ শেষ হল ভারতের পক্ষে ২-১ ম্যাচের ব্যবধানে। ম্যাচের ৪৮ বল বাকি থাকতেই ঘরের দল জিতে গিয়েছে।

প্রথম দু’ম্যাচ জিতে সিরিজ আগেই পকেটে পুরেছিল ভারত। তাই হালকাভাবে নিয়েছিল এ ম্যাচ। ভারতীয় দলের হয়ে পাঁচজন ক্রিকেটারের অভিষেক হয়েছে এদিনের ম্যাচে, এটিও নজির বলা যেতে পারে। অভিষেক হয় নীতীশ রানা, সঞ্জু স্যামসন, রাহুল চাহার, চেতন সাকারিয়া, কৃষ্ণাপ্পা গৌতমের। একসঙ্গে ৫ জনের অভিষেক! শেষবার এমন হয়েছিল ১৯৮০ সালে। ৪১ বছর বাদে ফের ইতিহাস।

কলম্বোয় বৃষ্টির পূর্বাভাস থাকা সত্ত্বেও এদিন টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন টিম ইন্ডিয়া। প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে ভারত তোলে ২২৫ রান। একটা সময় মনে হচ্ছিল, টিম ইন্ডিয়া হয়তো ৩০০ রানের অনেক বেশিই তুলে দেবে। কিন্তু বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হওয়ার পর ছন্দ হারিয়ে ফেলেন ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা। ভারতের স্কোর যখন ৩ উইকেটে ১৪৭ রান, তখনই বৃষ্টি নামে। ১ ঘণ্টার বেশি সময় বন্ধ ছিল খেলা। যার ফলে ম্যাচ কমিয়ে ৪৭ ওভারের করতে হয়।

সেট হওয়ার পরও ব্যর্থ হন মণীশ(১১), সূর্যকুমার যাদব (৪০) এবং হার্দিক (১৯)। অভিষেককারী নীতীশ রানা (৭) এবং কৃষ্ণাপ্পা গৌতমও (২) ব্যর্থ হন। দলের হয়ে সর্বোচ্চ পৃথ্বী শ ৪৯ এবং সঞ্জু স্যামসন ৪৬ রান করেন। দলের নেতা শিখর ফেরেন ১৩ রানে।

ডাকওয়ার্থ লুইস নিয়ম অনুযায়ী শ্রীলঙ্কাকে ২২৭ রানের টার্গেট দেওয়া হয়। জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভাল হয়নি শ্রীলঙ্কার। রাজাপাক্ষা এবং আবিস্কা ফার্নান্ডো জুটি বেঁধে দলের স্কোর ১৪৪ রান পর্যন্ত পৌঁছে দেন। ব্যক্তিগত ৬৫ রানের মাথায় রাজাপাক্ষাকে ফিরিয়ে দেন সাকারিয়া। আবিস্কা ফার্নান্ডো করেন ৭৬ রান। ভারতের রাহুল চাহার তিন উইকেট নিয়েছেন।

 

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.