‘বিরাট আমাদের কথাই শোনেনি, তাই রোহিতকে ওয়ান ডে ক্যাপ্টেন করতে হল’, বলছেন সৌরভ

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বোর্ড প্রেসিডেন্ট হিসেবে তাঁর কী বক্তব্য, সেই নিয়ে কৌতূহল ছিল। সেটি সকলের সমক্ষে আনলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। তিনি পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন কেন কী কারণে বিরাট কোহলির ওয়ান ডে নেতৃত্ব গিয়েছে।

অনেকে এও বলছিলেন, সৌরভ ও রাহুল দ্রাবিড়ের মিলিত মাথাই কোহলিকে সরানোর পিছনে ছিল। কিন্তু সৌরভ বৃহস্পতিবার সংবাদসংস্থা পিটিআইকে জানিয়েছেন, আমরা একা কী করে সিদ্ধান্ত নেব? এটা নির্বাচক ও বোর্ডের মিলিত সিদ্ধান্তেই হয়েছে।

সৌরভ এও বলেছেন, ‘‘আমরা টি ২০ বিশ্বকাপের পরেই বিরাটকে বলেছিলাম যেন নেতৃত্ব না ছাড়ে। আমি ব্যক্তিগতভাবেও বলেছিলাম সেই কথা, কিন্তু ও আমাদের কথা কানেই নিল না। তারপরেই বোর্ড থেকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, সাদা বলের ক্রিকেটে পৃথক দুই অধিনায়ক থাকার মানে হয় না। তখনই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বিরাটকে শুধু টেস্ট দলের দায়িত্ব দেওয়া হবে। রোহিতকে করা হবে টি ২০ এবং ওয়ান ডের অধিনায়কত্ব।’’

বোর্ডের অন্দরে খোঁজ নিলে এও জানা গিয়েছে, কোহলিকে ৪৮ ঘন্টা সময় দেওয়া হয়েছিল যাতে তিনি নিজেই ওয়ান ডে অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেন, তিনি নিজে সেটি চাননি বলে বোর্ড থেকে বিবৃতি দেওয়া সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। এমনকি সৌরভ ও নির্বাচক কমিটির প্রধান যে এই বিষয়ে কোহলির সঙ্গে কথা বলেছিলেন, সেটিও প্রেসিডেন্ট বলে দিয়েছেন।

বোর্ডের একাংশের মতে, সাদা বলে রোহিতের হাতে অধিনায়কত্বের ব্যাটন যাওয়া কার্যত নিশ্চিত ছিল। বুধবার শুধু আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করা হয়েছে। সংবাদসংস্থাকে সৌরভ জানান, ‘‘রোহিতের নেতৃত্বের উপর আস্থা আছে বোর্ডের। বিরাট টেস্ট দলের অধিনায়ক হিসেবে কাজ চালিয়ে যাবেন। বিরাট যে ওয়ান ডে ক্রিকেটে দারুণ নেতৃত্ব দিয়েছে, তার জন্য তাকে ধন্যবাদ জানাতে চাই।’’

যদিও ক্ষোভ রয়েছে কেন কোহলির মতো অধিনায়কত্ব সরানোর জন্য আলাদা কোনও প্রেস রিলিজ দিল না বোর্ড। দক্ষিণ আফ্রিকার টেস্ট দলের সঙ্গে এক লাইন লিখে দেওয়া হয়, রোহিত শর্মা ওয়ান ডে ক্যাপ্টেন হলেন। এদিন অবশ্য ভুল বুঝতে পেরে বিসিসিআই কোহলির অতীতের নানা অবদান মনে করিয়ে দিয়েছে টুইটের মাধ্যমে। মিডিয়ার লাগাতার আক্রমণে বোর্ড কর্তারাও ভুল শুধরে নিয়েছেন।

 

 

 

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.