রেশন দুর্নীতির প্রতিবাদ করায় মালদহে মহিলার শ্লীলতাহানি, স্বামীকেও বেধড়ক মার

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরেই এই এলাকার রেশন ডিলার দেবপ্রসাদ সিংহ সরকারি নিয়ম মেনে রেশন সামগ্রী সাধারণ মানুষদের দেন না। কিছু বলতে গেলে মারধর করতে শুরু করে। এর আগেও বেশ কয়েকজন মহিলাকে মারধর ও শ্লীলতাহানির অভিযোগ রয়েছে ওই রেশন ডিলারের বিরুদ্ধে। 

দ্য ওয়াল ব্যুরো, মালদহ: রেশন বণ্টনে দুর্নীতির প্রতিবাদ করায় এক মহিলাকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠল রেশন ডিলারের বিরুদ্ধে। শুধু মারধরই নয় রেশন দোকানের ভেতরে ঢুকিয়ে ওই মহিলাকে শ্লীলতাহানিরও অভিযোগ ওঠে ওই রেশন ডিলারের বিরুদ্ধে। স্ত্রীকে বাঁচাতে গেলে আক্রান্ত হন স্বামী। মালদহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার পর মহিলা থানায় ওই রেশন ডিলারের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন আক্রান্ত দম্পতি ।

বুধবার সকালে ইংরেজবাজার ব্লকের ফুলবাড়িয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের ফুলবাড়িয়া গ্রামে রেশন ডিলার দেবপ্রসাদ সিংহের বাড়িতে রেশন সামগ্রী নিতে যান ওই গ্রামের বাসিন্দা লোহিত সিংহ। অভিযোগ, সেই সময় লোহিত সিংহকে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকেন ওই রেশন ডিলার দেবপ্রসাদ সিংহ। তার প্রতিবাদ করায় লোহিতবাবুকে বেধড়ক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। স্বামীকে আক্রান্ত হতে দেখে ছুটে আসেন তার স্ত্রী । অভিযোগ তাকেও বেধড়ক মারধর করা হয় এমনকি রেশন দোকানের ভেতরে চুল ধরে টানতে টানতে ভেতরে ঢুকিয়ে অভিযুক্ত রেশন ডিলার তার শ্লীলতাহানি করে।

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরেই এই এলাকার রেশন ডিলার দেবপ্রসাদ সিংহ সরকারি নিয়ম মেনে রেশন সামগ্রী সাধারণ মানুষদের দেন না। কিছু বলতে গেলে মারধর করতে শুরু করে। এর আগেও বেশ কয়েকজন মহিলাকে মারধর ও শ্লীলতাহানির অভিযোগ রয়েছে ওই রেশন ডিলারের বিরুদ্ধে।  স্থানীয় বাসিন্দাদের আরো অভিযোগ কোন এক অদৃশ্য কারণে পুলিশ প্রশাসন অভিযুক্ত রেশন ডিলারের বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ করে না। অভিযুক্ত রেশন ডিলারের উপযুক্ত শাস্তির দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা ।

বুধবার আক্রান্ত মহিলা বলেন, ‘‘সকালে রেশন সামগ্রী আনার জন্য গিয়েছিলেন আমার স্বামী লোহিত সিংহ। রেশন সামগ্রী কম দেওয়া, সরকারি স্লিপ না দেওয়া এমনই বেশ কয়েকটি অভিযোগ করায় আমার স্বামীকে বেধড়ক মারধর শুরু করে রেশন ডিলার দেবপ্রসাদ সিংহ। আমি বাঁচাতে গেলে আমাকে মারধর শুরু করে। এমনকি আমার চুল ধরে টানতে টানতে রেশন দোকানের ভেতরে ঢোকায়। আমার গলায় থাকা সোনার চেন কেড়ে নেয় রেশন ডিলার। স্থানীয় বাসিন্দাদের সহযোগিতায় কোনওরকমে আমরা প্রাণে বাঁচি। প্রতিবেশীরাই আমাদের হাসপাতালে পৌঁছে দেন।’’

আক্রান্ত মহিলার স্বামী লোহিত সিংহ জানান, দীর্ঘদিন ধরেই রেশনে দুর্নীতির প্রতিবাদ জানিয়ে আসছেন তিনি। এর আগেও যারা প্রতিবাদ জানিয়েছে তাদের উপর চড়াও হয়েছে এই রেশন ডিলার। বেশ কয়েকটি মামলাও রয়েছে এই রেশন ডিলারের বিরুদ্ধে। আজ সকালে তিনি রেশন নিতে গেলে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে রেশন ডিলার দেবপ্রসাদ সিংহ । তিনি বলেন, ‘‘আমার হাতে থাকা রেশন সামগ্রী ছিটিয়ে ফেলে দেয় রাস্তায়। রেশন সামগ্রী বন্ধ করে দেওয়ার হুমকি দিতে থাকে। প্রতিবাদ করায় আমাকে বেধড়ক মারধর শুরু করে। আমাকে বাঁচাতে এসে আক্রান্ত হতে হয় আমার স্ত্রীকেও।’’

আক্রান্ত মহিলার কথা শুনে পাশে দাঁড়ান মালদহ জেলা আদালতের আইনজীবী তথা সর্বভারতীয় হিউম্যান রাইটস কমিশনের  মালদহ জেলার প্রতিনিধি মৃত্যুঞ্জয় দাস। তিনি বলেন, আমি জানতে পারি রেশন ডিলারের দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় এক মহিলাকে মারধর ও শ্লীলতাহানি করা হয়েছে। আমি মহিলাকে আইনগত সমস্ত সাহায্য করব। থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ওই আক্রান্ত মহিলা।’’

পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। কী কী ধারায় মামলা রুজু হবে তা দেখা হচ্ছে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More