দিদির থেকে ট্যাবের টাকা পেয়ে উচ্ছ্বাস, ডিজে বাজিয়ে পড়ুয়াদের মিছিল ইসলামপুরে

করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে দেশজুড়ে বন্ধ রয়েছে সমস্ত স্কুল কলেজ ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। অনলাইনে চলছে পড়াশোনা। কিন্তু রাজ্যের বহু ছাত্রছাত্রীর অ্যানড্রয়েড মোবাইল ফোন বা ট্যাব কিনে অনলাইনে পড়াশোনা করার সামর্থ্য নেই। পড়ুয়াদের এই সমস্যার কথা ভেবে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় ছাত্রছাত্রীদের ট্যাব কেনার জন্য সরকারি অর্থ সাহায্য দেওয়ার কথা ঘোষণা করেন।

দ্য ওয়াল ব্যুরো, উত্তর দিনাজপুর: করোনা পরিস্থিতিতে স্কুল-কলেজ বন্ধ। অনলাইনে ক্লাস করার জন্য দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের ট্যাব দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই ট্যাবের টাকা অ্যাকাউন্টে ঢুকতেই উল্লাসে মেতে উঠল পড়ুয়ারা। রীতিমতো ডিজে বাজিয়ে নেচে গেয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের জয়ধ্বনি দিল পড়ুয়ারা। শুক্রবার রাতে এমনই চিত্র দেখা গেল ইসলামপুর ব্লকের প্রত্যন্ত এলাকা রামগঞ্জে। রামগঞ্জ হাইস্কুলের দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়ারা উল্লাসিত হয়ে আওয়াজ তুলল ‘রাজ্যে দিদি আর একবার’।

করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে দেশজুড়ে বন্ধ রয়েছে সমস্ত স্কুল কলেজ ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। অনলাইনে চলছে পড়াশোনা। কিন্তু রাজ্যের বহু ছাত্রছাত্রীর অ্যানড্রয়েড মোবাইল ফোন বা ট্যাব কিনে অনলাইনে পড়াশোনা করার সামর্থ্য নেই। পড়ুয়াদের এই সমস্যার কথা ভেবে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় ছাত্রছাত্রীদের ট্যাব কেনার জন্য সরকারি অর্থ সাহায্য দেওয়ার কথা ঘোষণা করেন।

উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার প্রস্তুতি যাতে দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রছাত্রীরা ঘরে বসে অনলাইন প্রযুক্তির মাধ্যমে নিতে পারেন সেজন্য রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে রাজ্যের সমস্ত স্কুলের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের অ্যাকাউন্টে ট্যাব কেনার জন্য ১০ হাজার টাকা করে দেওয়া হয়েছে। ট্যাব কেনার টাকা অ্যাকাউন্টে ঢুকতে উল্লাসে ফেটে পড়েন ইসলামপুর ব্লকের রামগঞ্জ হাইস্কুলের দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়ারা।

শুক্রবার রাতে রীতিমতো ডিজে বাজিয়ে নেচে গেয়ে উৎসবে মেতে ওঠেন তাঁরা। তাঁদের সেই উল্লাসের মাঝেই ওঠে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের জয়ধ্বনি। আনন্দে মাতোয়ারা রামগঞ্জ হাইস্কুলের পড়ুয়ারা বলেন, ‘‘আমাদের ট্যাব কেনার ক্ষমতা ছিল না। মানবিক মুখ্যমন্ত্রী ট্যাব কেনার টাকা দিয়ে খুব উপকার করেছেন।’’ নাচগানের মাধ্যেই ওঠে ‘রাজ্যে মমতা ব্যানার্জি আরও একবার’ স্লোগান।

ট্যাবের টাকা পেয়ে ছাত্রছাত্রীদের এমন উচ্ছ্বাস দেখে থমকে গেছেন আশেপাশের বাসিন্দারা। অনলাইনে পড়াশোনার জন্য ট্যাব দেওয়া হয় ছাত্রছাত্রীদের। নিঃসন্দেহে সরকারের উদারতা। কিন্তু তারজন্য ডিজে বাজতে দেখে কপালে ভাঁজ অনেকেরই।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More