তৃণমূলের মিছিলে সরগরম মেমারি, মন্ত্রীর দাবি কলকাতায় অভব্যতার প্রতিবাদেই পদযাত্রা

স্বপন দেবনাথ সভায় দাবি করেন, ‘‘২৩ শে জানুয়ারি কলকাতায় যে অভব্যতা বিজেপি করেছে, আজকের মিছিল তারই প্রতিবাদে।’’ কিন্তু আসলে এই মিছিল শাসকদের শক্তি প্রদর্শনের চেষ্টা বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

দ্য ওয়াল ব্যুরো, পূর্ব বর্ধমান: বিজেপির রাজ্য সহ-সভাপতি রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়ের র‍্যালির পাল্টা র‍্যালি করল তৃণমূল। দিন কয়েক আগেই মেমারিতে পদযাত্রা করেন বিজেপি নেতা রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার তৃণমূল জেলা সভাপতি তথা রাজ্যের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথের নেতৃত্বে পদযাত্রা করল তৃণমূল।

মেমারি কলেজ মোড় থেকে শুরু হয়ে চেকপোস্ট এলাকায় শেষ হয় পদযাত্রা। মিছিল শেষে বামুনপাড়া মোড়ে পথসভা হয়। বক্তব্য রাখেন, মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ, বিধায়ক নার্গিস বেগম। বিজেপির জেলা কার্যালয়ে ভাঙচুর প্রসঙ্গে স্বপন দেবনাথ বলেন, ‘‘প্রথমে ভাঙচুরের ঘটনায় শাসকদলের দিকে আঙ্গুল তোলা হচ্ছিল। কিন্তু রাজ্য বিজেপি জেলার সভাপতি সহ ১৬ জনকে শোকজ করেছে। অর্থাৎ; এটা প্রমাণ হয়ে গেল যে বিজেপি নিজেই নিজের ঘর ভেঙেছে।’’

গত কয়েকদিন আগেই বিজেপির জেলা কার্যালয়ে ক্ষমতাসীন ও বিক্ষুব্ধ গোষ্ঠীর মধ্যে ধুন্ধুমার সংঘর্ষ বাধে। অফিস ভাঙচুর হয়। বেশ কয়েকজন আহত হন। সাতজন গ্রেফতার হন। সে সময় বিজেপির জেলা সহ-সভাপতি প্রবাল রায় সরাসরি অভিযোগ করেন পিকের টিম লোক দিয়ে এই হামলা করেছে। এর পিছনে শাসকদলের হাত আছে। এরপরই গতকাল বিজেপির জেলা সভাপতি সন্দীপ নন্দী সহ দু তরফের মোট ১৬ জনকে শোকজ করে বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব।

যদিও স্বপন দেবনাথ সভায় দাবি করেন, ‘‘২৩ শে জানুয়ারি কলকাতায় যে অভব্যতা বিজেপি করেছে, আজকের মিছিল তারই প্রতিবাদে।’’ কিন্তু আসলে এই মিছিল শাসকদের শক্তি প্রদর্শনের চেষ্টা বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

জেলা বিজেপি সভাপতি সন্দীপ নন্দী বলেন, ‘‘তৃণমূল কংগ্রেসের কালচারই হল পাল্টা সভা আর মিছিল। ওসব করে বাংলার মানুষের মন জয় করা যাবে না। বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলকে বাংলার মানুষ জবাব দেবে।’’

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More