একমাস পর জামাইষষ্ঠীর দিন খুলল তারাপীঠ মন্দির, পুজো দিলেন ভক্তরা

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো, বীরভূম: করোনা দ্বিতীয় ঢেউয়ে সংক্রমণের প্রকোপ বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে লকডাউন ঘোষণা করেছিল সরকার। পুনরায় এই লকডাউন পরিস্থিতিতে সুফল মিলেছে অনেকটাই। কমেছে সংক্রমণ ও মৃতের হার। আসতে আসতে স্বাভাবিকের দিকে এগোচ্ছে পরিস্থিতি। তাই এবার জামাইষষ্ঠীর দিনে দীর্ঘ একমাস পর সাধারণের জন্য খুলে গেল তারাপীঠ মন্দিরের দরজা।

১৫ মে থেকে ভক্তদের জন্য বন্ধ ছিল মন্দির। তবে করোনাবিধি মেনে সাধারণের জন্য ফের মন্দির খোলা সিদ্ধান্ত নেয় তারাপীঠ মন্দির কমিটি।

তবে এতদিন শুধু নিয়ম মেনে নিত্যপুজো করছিলেন পুজারীরা। বন্ধ ছিল মা তারা মন্দিরের ২টি প্রবেশপথ। বর্তমানে সংক্রমণ কমার জন্য তারাপীঠ মন্দির কমিটি গত সোমবার দুপুরে বৈঠক করে।

সেখানেই সিদ্ধান্ত নেই মন্দিরের গর্ভগৃহ সকলের জন্য খোলা হবে ১৬ জুন। ফলত কথা মতোই বুধবার ১৬ জুন জামাইষষ্ঠীর দিন থেকে খুলে দেওয়া হল গর্ভগৃহের দ্বার।

এদিন ভোরে থেকে সর্বসাধারনের জন্য মন্দির খুলে দেওয়া হয়। মূলত, তারাপীঠ মন্দিরকে কেন্দ্র করে বহু হোটেল ব্যবসায়ী কর্মচারী, অটো চালক, ফুল সহ ডালা ব্যবসায়ী হাজারো পরিবারের সংসার চলে। তারাপীঠ মন্দির বন্ধ থাকায় সকলেই আর্থিক অনটনের মুখে পড়েছিলেন।  সকলের কথা মাথায় রেখেই এমন সিদ্ধান্ত বলে জানান তারাপীঠ মন্দির কমিটির সভাপতি তারাময় মুখোপাধ্যায়।

যদিও মন্দিরে প্রবেশ করতে হলে কড়াভাবে করোনা বিধি মেনে ভক্তদের পুজো দিতে হচ্ছে। কোনো রকম জমায়েত করা মন্দির প্রাঙ্গণে করা  যাবে না। মন্দিরে ঢোকার আগে স্যানিটাইজ করা হবে, মাস্ক আব্যশক। মা তারার ছবি তোলা বা ভিডিওকল নিষিদ্ধ, গর্ভগৃহে প্রবেশ করে মাকে ছুঁয়ে পুজো নিষিদ্ধ করা হয়েছে। বাইরে থেকেই সারতে হবে পুজো। মন্দির খোলায় খুশি ভক্তরা। তবে এদিন পর্যটকদের ভিড় দেখা যায়নি সেখানে। স্থানীয়রাই  ষষ্ঠী পুজোয় দেন।

 

 

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.