আবাস যোজনায় দুর্নীতির অভিযোগ তুলে পঞ্চায়েত অফিসে তালা ঝোলাল বিজেপি

উমফান দুর্নীতি ও কেন্দ্রীয় আবাস যোজনার টাকা তছরুপ করা হয়েছে অভিযোগ তুলে এ দিন মাকড়দহ এক নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের সামনে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। তালা লাগিয়ে দেওয়া হয় পঞ্চায়েত অফিসে।

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো, হাওড়া: দুর্নীতির অভিযোগে পঞ্চায়েত অফিসে তালা লাগিয়ে দিল বিজেপি কর্মীরা। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে শুক্রবার তীব্র উত্তেজনার সৃষ্টি হয় মাকড়দহ এক নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েত অফিসের সামনে।

উমফান দুর্নীতি ও কেন্দ্রীয় আবাস যোজনার টাকা তছরুপ করা হয়েছে অভিযোগ তুলে এ দিন মাকড়দহ এক নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের সামনে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। তাঁদের অভিযোগ, পঞ্চায়েত প্রধান ও তাঁর দলবল সাধারণ মানুষের সমস্ত টাকা লুঠ করেছে। প্রতিবাদে মাকড়দহ এক নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েত অফিসের গেটের সামনে বিক্ষোভ দেখান তাঁরা। তালাও ঝুলিয়ে দেওয়া হয়। ঘণ্টাখানেক হাওড়া-আমতা রোড অবরোধ করেন বিজেপি কর্মীরা। ফলে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়। সমস্যায় পড়েন নিত্যযাত্রীরা। পরে পুলিশ এসে অবরোধকারীদের সরিয়ে দেয়।

আবাস যোজনার প্রকল্পে দুর্নীতির অভিযোগকে সম্পূর্ণভাবে অস্বীকার করে ডোমজুড় পঞ্চায়েত সমিতির পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ সুবীর চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘‘ওই পঞ্চায়েতে কোনও দুর্নীতি হয়নি। আবেদনকারীর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে সরাসরি টাকা ঢুকেছে। এখানে পঞ্চায়েতের দুর্নীতি করার কোনও জায়গা নেই।’’ পঞ্চায়েত অফিসে তালা ঝোলানোর ঘটনায় বিজেপির কড়া নিন্দা করেন। তিনি বলেন, ‘‘বিজেপি সারা রাজ্যের মতো একইভাবে ডোমজুড় এলাকাতেও অশান্তির পরিবেশ তৈরি করতে চাইছে। তারা রাজনীতি করার জন্য রাজনীতি করছে।’’

ডোমজুড়ের বিডিও দীপঙ্কর দাস বলেন, ‘‘প্রশাসনিক দফতরে তালা দেওয়াটা সঠিক কাজ নয়। বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে আমি কথা বলেছি। তাঁদের অভিযোগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’’

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.