জবকার্ডের টাকা আত্মসাতের অভিযোগে মালদহের জেলা প্রশাসনিক ভবনে ধর্না গ্রামবাসীদের

তাঁদের অভিযোগ, ইংরেজবাজারের কাজিগ্রামে প্রায় দু’হাজার মানুষের জব কার্ডের টাকা আত্মসাৎ করেছে প্রধান। টাকা ফেরতের দাবিতে মঙ্গলবার দুপুরে প্ল্যাকার্ড হাতে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু করেন গ্রামবাসীরা।

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো, মালদহ: বাংলার আবাস যোজনার জবকার্ডের টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ তুলে জেলা প্রশাসনিক ভবনের সামনে ধর্না দিলেন বিক্ষোভকারীরা। তাঁদের অভিযোগ, ইংরেজবাজারের কাজিগ্রামে প্রায় দু’হাজার মানুষের জব কার্ডের টাকা আত্মসাৎ করেছে প্রধান। টাকা ফেরতের দাবিতে মঙ্গলবার দুপুরে প্ল্যাকার্ড হাতে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু করেন গ্রামবাসীরা।

কাজিগ্রামের বাসিন্দা চন্দনা মণ্ডল, বাপ্পা মণ্ডলদের অভিযোগ, ২০১৭-১৮ সালে প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা প্রকল্পের ঘরের জন্য আবেদন জানিয়েছিলেন তাঁরা। এক লক্ষ কুড়ি হাজার টাকা পেলেও তারা পাননি জব কার্ডের ১৬,২০০ টাকা। তাঁদের অভিযোগ, সেই টাকা পঞ্চায়েত সদস্য এবং প্রধানরা অন্য অ্যাকাউন্টে ঢুকিয়ে আত্মসাৎ করেছেন। জব কার্ডের টাকা ফেরানোর দাবিতে এ দি‌ন জেলা প্রশাসনিক ভবনের সামনে দীর্ঘক্ষণ বিক্ষোভ দেখান তাঁরা। পরে তাঁদের দাবি সনদ জেলাশাসকের কাছে পাঠান।

যতক্ষণ তাঁদের দাবি পূরণ না হবে, ততক্ষণ আন্দোলন চলবে বলে জানিয়েছেন তাঁরা। উপভোক্তাদের এই অভিযোগ অবশ্য মানতে চাননি কাজীগ্রাম গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান সত্যজিৎ চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘‘এই অভিযোগ পুরোপুরি ভিত্তিহীন। বিজেপির মদতে চক্রান্ত করা হচ্ছে। একশ্রেণির মানুষকে ভুল বোঝানো হচ্ছে।’’ তবে বিজেপি নেতৃত্বের বক্তব্য, গোটা রাজ্যেই মানুষের সঙ্গে এভাবে প্রতারণা চলছে। এটা নতুন কোনও ঘটনা নয়।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.