নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার হচ্ছে, অভিযোগ তুলে ভূতনিতে রাস্তা তৈরির কাজ বন্ধ করলেন গ্রামবাসীরা

1

দ্য ওয়াল ব্যুরো, মালদা: নিম্নমানের কাজের অভিযোগ তুলে অনির্দিষ্টকালের জন্য রাস্তা তৈরির কাজ বন্ধ করে দিলেন এলাকাবাসী। তাঁদের অভিযোগ, সঠিক সামগ্রী ব্যবহার করা হচ্ছে না। তোলাবাজির কারণে এই রাস্তার নিম্নমানের করা হচ্ছে এমনটাই মনে করছেন এলাকাবাসী। এমন ঘটনাটি সামনে এসেছে মানিকচক ব্লকের ভূতনি দক্ষিণ চণ্ডীপুর এলাকায়।

মানিকচকের ভূতনি ব্রিজ সংলগ্ন এলাকা থেকে বাঁধের উপর শুরু হয়েছে পাকা রাস্তার কাজ। যে রাস্তা ভূতনি হাসপাতাল পর্যন্ত নির্মাণ হবে। তবে ঢিলেঢালা মনোভাবে দীর্ঘ প্রায় দুই বছরের বেশি সময় ধরে এই রাস্তার কাজ এখনও শেষ হয়নি। পিচ দিয়ে পাকা রাস্তা নির্মাণ হচ্ছে। উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন পর্ষদের বরাদ্দ অর্থ প্রায় সাড়ে ছয় কোটি টাকা ব্যয়ে ৭ কিমি রাস্তা তৈরির কাজ চলছে। খোদ উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী রাস্তার কাজের সূচনা করেছিলেন।

তবে এদিন দক্ষিণ চণ্ডীপুর গ্রাম পঞ্চায়েত কর্তৃপক্ষ সহ স্থানীয় বাসিন্দারা রাস্তার কাজ বন্ধ করে দিয়ে আন্দোলনে নামলেন। খোদ পঞ্চায়েত প্রধান সহ পঞ্চায়েত সদস্য ও স্থানীয় বাসিন্দারা এই রাস্তার কাজ এদিন বন্ধ করে দিয়ে সঠিক কাজের দাবি তুলতে থাকেন। নিয়ম মেনে সঠিক কাজ না হলে বন্ধ থাকবে অনির্দিষ্টকালের জন্য রাস্তার নির্মাণ,এমনটাই স্পষ্ট করে দিয়েছে এলাকাবাসী।

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন পর্ষদের তরফে রাস্তার কাজ শুরু হয়েছিল। কিন্তু ঠিকাদার সংস্থা বারংবার ঢিলেঢালা মনোভাবের কারণে বছরের পর বছর পার হয়েছে রাস্তা নির্মাণ নিয়ে। তবে বর্তমানে যেভাবে রাস্তার কাজ করা হয়েছে তা অত্যন্ত নিম্নমানের। পাথরের বদলে মাটি, বালি এই সমস্ত সামগ্রী দিয়ে রাস্তার কাজ করা হচ্ছে। এই ভাবে রাস্তা করা হলে মানুষের যে সমস্যা তা থেকেই যাবে। কেবলমাত্র নিজেদের পেটভরাতে এই দুর্নীতি চালানো হচ্ছে রাস্তার কাজে।

স্থানীয় বাসিন্দা বকুল দাসের অভিযোগ, এই রাস্তার নির্মাণ নিয়ে তোলাবাজি হচ্ছে আমরা শুনতে পাচ্ছি। ঠিকাদার সংস্থা ঠিকঠাক কিছু জানাচ্ছে না। তোলাবাজি ও দুর্নীতির কারণে রাস্তার কাজ ঠিক না হলে মানুষের সমস্যা আরও বেড়ে যাচ্ছে। রাস্তার কাজে প্রয়োজনীয় সামগ্রী ঠিকাদার সংস্থা কোনমতেই ব্যবহার করছেন না। ফলে সঠিক নিয়ম মেনে কাজ না হলে এই রাস্তার কাজ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ থাকবে।

মঙ্গলবার দক্ষিণ চণ্ডীপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান অজয় মন্ডল সহ পঞ্চায়েতের সদস্য এবং গ্রামবাসীরা এই রাস্তার কাজ বন্ধ করে দিয়ে বিক্ষোভ দেখান। এই প্রসঙ্গে কিষান জাতি পরিচালিত পঞ্চায়েত প্রধান অজয় মন্ডল জানান, ঠিকাদার সংস্থায় এই দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত। কোনরকমে কর্ণপাত করছে না সংস্থার লোকজন। তাই গ্রাম পঞ্চায়েতের সমস্ত সদস্যের সঙ্গে আলোচনা করে এই রাস্তার কাজ বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সঠিক কাজ না হলে আগামী দিনে এই রাস্তার কাজ বন্ধ থাকবে।

যদিও ভালো করে কাজ করার কথা জানিয়েছে ঠিকাদার সংস্থার মুন্সির দায়িত্বে থাকা কর্মী প্রকাশ মন্ডল। তিনি জানান, রাস্তার কাজ ভালই হচ্ছে তবে বালি দিয়ে চেষ্টা করা হচ্ছিল রাস্তাটি ঠিক হচ্ছে কিনা। যখন গ্রামবাসীরা অভিযোগ করছে তাই সে বালি ব্যবহার করে কাজ করা বন্ধ করে দেওয়া হবে। সঠিক নিয়ম মেনে কাজ হচ্ছে এবং আগামী দিনেও হবে। বাকি সমস্ত বিষয় সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

যদিও মানিকচক ব্লক প্রশাসনিক সূত্রে জানা যাচ্ছে, রাস্তার কাজ যাতে সঠিকভাবে হয় তার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। প্রয়োজনে আধিকারিকরা ও সে কাজ পরিদর্শন করবেন।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.