চন্দ্রকোণায় অমানবিকতা! দুদিন রাস্তায় পড়ে কাতরে মহিলার মৃত্যু, করোনার ভয়ে তাকাল না কেউ

1

দ্য ওয়াল ব্যুরো: করোনা আবহে বাংলায় ফের উঠে এল অমানবিকতার ছবি। দুদিন ধরে অসুস্থ অবস্থায় রাস্তার ধারে বিনা চিকিৎসায় পড়ে থেকে মৃত্যু হল এক মহিলার। করোনার ভয়ে সাহায্যে এগিয়ে এলেন না কেউই।

ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুরের চন্দ্রকোণার ক্ষীরপাই চৌকান এলাকায়। জানা গেছে, সেখানে অসুস্থ শরীর নিয়ে রাস্তার ধারে পড়েছিলেন এক মহিলা। ৪৮ ঘন্টা পরেও
কেউ তাঁর দিকে ফিরে তাকাননি। করোনা সংক্রমণের ভয়েই তাঁর দিকে এগিয়ে যাননি কেউ। পরে পুলিশ খবর পেয়ে ওই মহিলাকে উদ্ধার করে। কিন্তু হয় না শেষ রক্ষা।

এদিন দুপুরে বিষয়টি জানতে পেরে তড়িঘড়ি ঘটনাস্থলে পৌঁছন ক্ষীরপাই ফাঁড়ির অফিসার ইনচার্জ প্রশান্ত কীর্তনীয়া এবং ব্লকের বিডিও। আসেন ক্ষীরপাই ট্রাক্সফোর্স এর সদস্যরাও। পুলিশের গাড়ি করেই মহিলাকে নিয়ে যাওয়া হয় ক্ষীরপাই গ্রামীণ হাসপাতালে। কিন্তু কিছুক্ষণ চিকিৎসার পরেই মারা যান ওই মহিলা। রাস্তার ধারে দুদিন থাকতে থাকতেই কেটে গেছে অমূল্য সময়।

আদেও ওই মহিলা করোনা আক্রান্ত কিনা তা জানা যায়নি। মৃত্যুর কারণও স্পষ্ট নয়। তবে তাঁর লালা রস সংগ্রহ করা হয়েছে। সেই পরীক্ষার রিপোর্ট এলেই জানা যাবে ঠিক কী হয়েছিল ওই মহিলার।

তাঁর নাম পরিচয়ও কিছুই জানা যায়নি। ফলে আত্মীয় পরিজনের খোঁজ পাওয়া সম্ভব নয়। পুলিশ ও ব্লকের বিডিও রথীন্দ্র নাথ ঘোষ এ প্রসঙ্গে বলেছেন, ওই মৃত মহিলার সৎকারের ব্যবস্থা প্রশাসনই করবে।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.