মধু বলে যা মিলছে, সবই নাকি চিনির সিরাপ! দেশজুড়ে বড় প্রতারণার হদিস দিল সিএসই

দ্য ওয়াল ব্যুরো: চিনির বদলে মধু খেতে বলছেন ডাক্তাররা, তাতে শরীরের ক্ষতি কম। কিন্তু সেই মধুই যদি চিনির থেকেও ক্ষতিকারক হয়? চিন্তায় পড়লেন? সমীক্ষায় জানা গেছে, বাজারে বিক্রি হওয়া অধিকাংশ জিনিসের মধ্যে মধুর গুণগত মান সবথেকে খারাপ। চিনির মতোই যা শরীরের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকারক।

যার প্রতি এত বিশ্বাস আপামর জনসাধারণের, সেই মধু প্রতারণা করছে, এটা ভাববেন না। আসলে প্রতারণা করছে মধু বিক্রেতার মালিকেরা। সেন্টার ফর সায়েন্স অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট অর্থাত সিএসই জানিয়েছে, ভারতের বাজারে বিক্রি হওয়া ৭৭ শতাংশ ব্র্যান্ডেড মধু আসলে চিনির সিরাপ, যা অত্যন্ত ক্ষতিকর প্রভাব ফেলছে প্রত্যেকের শরীরে। এই নকল মধুর বাজারকে তারে বলছে ‘হানি ট্র্যাপ’।

সিএসই ডিরেক্টর জেনারেল সুনীতা নারায়ণ এদিন এবিষয়ে বলেন, “ভারতীয়রা মধু নয়, আসলে চিনিই খাচ্ছেন প্রতিদিন।” ‘হানি ট্র্যাপ’ প্রসঙ্গে তিনি নিজেই জানালেন, ভারতীয় ১৩টি ব্র্যান্ডের মধু সিএসই বিভাগ থেকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার পরে নিউক্লিয়ার ম্যাগনেটিক রেসোন্যান্স স্পেক্ট্রোস্কোপি (এনএমআর) টেস্টের জন্য পাঠানোর পরে তাঁরা মাতের তিনটি ব্র্যান্ডের মধুকে ‘মধু’ হিসেবে মেনে নিতে পেরেছেন। বাকি সবগুলোই ল্যাব টেস্টের পরে রিজেক্ট করা হয়েছে।

তদন্তে জানা যাচ্ছে, চিন থেকে বিভিন্ন কোম্পানির চিনির সিরাপ ভারতে রফতানি করা হয়। শুধু তাই নয়, চিনের তরফে এমন কিছু কলকাঠি নাড়া রয়েছে ভারতে, যাতে সেই সব সিরাপ ভারতের হানি টেস্টে ধরাই না পড়ে। পয়লা অগস্ট কেন্দ্রীয় বাণিজ্য মন্ত্রক আদেশ দেয় ভারত থেকে মধু বাইরে রফতানি করার আগে এনএমআর টেস্টে পাস করাটা বাধ্যতামূলক। এর পরেই সামনে আসে এই বিশাল জালচক্র।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More