‘আভি তো সুরজ উগা হ্যায়…’, নতুন বছরের শুরুতে কবিতা লিখলেন মোদী

দ্য ওয়াল ব্যুরো : ২০২১ সালের প্রথম দিনটিতে টুইটারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর লেখা একটি কবিতা পোস্ট করেছে ভারত সরকার। সেই সঙ্গে লেখা হয়েছে, ‘প্রধানমন্ত্রী সকলকে উৎসাহ দেওয়ার জন্য এই সুন্দর কবিতাটি লিখেছেন।’ কবিতার প্রথম লাইনটি হল ‘আভি তো সুরজ উগা হ্যায়…।’ অর্থাৎ সবে সুর্যোদয় হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নিজে টুইটারে লিখেছেন, ‘সকলকে শুভ নববর্ষ জানাই। নতুন বছর সকলের জন্য সুস্বাস্থ্য, আনন্দ ও সমৃদ্ধি আনুক।’

এর আগে মোদী জানিয়েছিলেন, নতুন বছরের শুরুর দিনে তিনি এমন একটি অনুষ্ঠানে অংশ নিচ্ছেন যা ভারতের শহরগুলির চেহারা বদলে দেবে। এদিন তিনি ছ’টি শহরে ‘লাইট হাউস প্রজেক্ট’-এর শিলান্যাস করবেন। সেই শহরগুলি হল রাজকোট, চেন্নাই, রাঁচি, আগরতলা এবং লখনউ।

বৃহস্পতিবার মোদী জানান, সারা দেশে করোনা টিকার যাতে সমবন্টন হয় সেজন্য সবরকম প্রস্তুতি চলছে। তিনি বলেছেন, দেশে শুধু নয় সারা বিশ্বে ভ্যাকসিন পৌঁছে দেওয়ার বৃহত্তর কর্মসূচীতে রয়েছে ভারত। সংহতির সঙ্গে একজোট হয়ে অতিমহামারীর মোকাবিলা করবে দেশ।

মোদী বলেন, “আগে আমি বলতাম, যতক্ষণ না ওষুধ আসছে ততক্ষণ কোনও ঢিলেমি নয়। কিন্তু এখন আমার মন্ত্র হল, ওষুধও দরকার আবার কড়া সতর্কতাও।” করোনা সংক্রমণ ক্রমেই নিয়ন্ত্রমে আসছে। নতুন সংক্রমণও কমেছে দেশে। এমন পরিস্থিতিতে সব বিধিনিষেধ ভুলে গেলে চলবে না। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ভ্যাকসিন চলে আসার পরেও একই রকম সতর্কতা দরকার। ঠিক যেভাবে কোভিড প্রোটোকল মেনে এতদিন একজোট হয়ে দেশবাসী করোনা মহামারীর মোকাবিলা করেছে, পরবর্তীকালেও এমনই ঐক্যবদ্ধ প্রয়াস এই স্বাস্থ্য সংকট থেকে রেহাই দেবে।

করোনা টিকার অগ্রগতি কতটা তা নিজের চোখে খতিয়ে দেখে এসেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আহমেদাবাদের জাইদাস ক্যাডিলা, হায়দরাবাদের ভারত বায়োটেক ও পুণের সেরাম ইনস্টিটিউটের ল্যাবরেটরিতে গিয়ে টিকার প্রস্তুতি দেখেছেন। পুণের জেনোভা বায়োফার্মাসিউটিক্যালস এবং হায়দরাবাদের দুই সংস্থা বায়োলজিক্যাল ই লিমিটেড এবং ডক্টর রেড্ডিজ ল্যাবের আধিকারিকদের সঙ্গে টিকার অগ্রগতি নিয়ে বৈঠকও করেছেন। টিকা দেওয়ার পুরো ব্যবস্থাপনার বিষয়ে ভ্যাকসিন নির্মাতা সংস্থাগুলির পরামর্শও চেয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী।

দেশে জরুরি ভিত্তিতে টিকাকরণের জন্য ইতিমধ্যেই তিন কোম্পানি তাদের প্রস্তাব পেশ করেছে। এর মধ্যে রয়েছে সেরাম ইনস্টিটিউট, ভারত বায়োটেক এবং ফাইজার-বায়োএনটেক। অক্সফোর্ড টিকার ফর্মুলায় কোভিশিল্ড টিকা তৈরি করেছে সেরাম। জরুরি ভিত্তিতে কোভিশিল্ড টিকার ছাড়পত্র দেওয়া হতে পারে। তবে এখনও এই ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়নি কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের অধীনস্থ ভ্যাকসিন রেগুলেটারি কমিটি।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More