কুম্ভমেলা থেকে করোনা ‘প্রসাদ’ নিয়ে আসছেন পূণ্যার্থীরা, তীব্র কটাক্ষ মুম্বই মেয়রের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: করোনা আবহে কুম্ভমেলার আয়োজন নিয়ে জারি তরজা। উত্তরাখণ্ডের হরিদ্বারে গঙ্গাতীরে কুম্ভমেলা উপলক্ষ্যে হাজির হয়েছেন শত শত পূণ্যার্থী। কিন্তু দেশ জুড়ে অতিমারী চলাকালীন সময়ে এই ধরণের বিরাট জমায়েত, করোনা বিধির লঙ্ঘন, প্রশ্ন তুলে দিয়েছে একাধিক। কুম্ভমেলা নিয়ে সমালোচনায় সরব হয়েছেন অনেকেই। সেই সুরেই সুর মিলিয়ে এবার কুম্ভমেলাকে তীব্র কটাক্ষ করলেন মুম্বইয়ের মেয়র কিশোরি পেডনেকর।

হরিদ্বারের কুম্ভমেলা থেকে যেসব পূণ্যার্থী পূণ্য অর্জন করে ফিরে আসবেন, তাঁরা আসলে যার যার রাজ্যে প্রসাদ হিসেবে ছড়িয়ে দেবেন করোনা ভাইরাস, এদিন এমনটাই মন্তব্য করেছেন কিশোরি পেডনেকর। মুম্বইতে কুম্ভমেলা ফেরত তীর্থযাত্রীদের কোয়ারানটাইনে রাখার কথাও বলেছেন তিনি। নিজের খরচেই কোয়ারানটাইনে থাকতে হবে পূণ্যার্থীদের, তাও জানাতে ভোলেননি বৃহনমুম্বই মিউনিসিপ্যাল করপোরেশনের মেয়র পেডনেকর।

এদিন তিনি বলেছেন, “কুম্ভমেলা থেকে যাঁরা যাঁরা নিজেদের রাজ্যে আবার ফিরে যাচ্ছেন, তাঁরা প্রসাদ হিসেবে করোনা বিলি করবেন। এইসব লোকজনের যার যার রাজ্যে নিজের খরচে কোয়ারানটাইনে থাকা উচিত। মুম্বইতেও আমরা সেই রকমই ভাবনাচিন্তা করছি।”

দেশ জুড়ে করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়েছে। কিন্তু তা নিয়ে সচেতনতার কোনও বালাই নেই সাধারণ মানুষের মধ্যে। বরং করোনাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে কুম্ভমেলা উপলক্ষ্যে হরিদ্বারে হাজির হয়েছেন বহু মানুষ। এই পরিস্থিতিতে মুম্বইতে যত দ্রুত সম্ভব, সম্পূর্ণ লকডাউন জারি করা উচিত বলে দাবি করেছেন কিশোরি পেডনেকর। তাঁর কথায়, “মুম্বইয়ের ৯৫ শতাংশ মানুষ কোভিডবিধি মেনে চলছেন। কিন্তু বাকি ৫ শতাংশই সমস্যার জন্য দায়ী। বর্তমান পরিস্থিতিল দিকে তাকিয়ে সম্পূর্ণ লকডাউন জারি করা উচিত বলে আমার মনে হয়।”

কুম্ভমেলা যে করোনার ‘সুপারস্প্রেডার’ হয়ে দাঁড়িয়েছে, তা বুঝেছেন প্রধানমন্ত্রীও। শনিবারই তিনি এ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। বলেছেন, এবার থেকে কুম্ভমেলা হোক শুধুই প্রতীকী। দেশবাসীর উদ্দেশ্যে করোনা মোকাবিলায় সহায়তার ডাকও দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী।

মহারাষ্ট্রে ইতিমধ্যে করোনা ঠেকাতে জারি করা হয়েছে বেশ কিছু নিষেধাজ্ঞা। যদিও সম্পূর্ণ লকডাউনের পথে এখনও হাঁটেননি মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। গত ২৪ ঘণ্টায় সে রাজ্যে ৬৩ হাজার ৭২৯ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। ভাইরাসের কোপে মৃত্যু হয়েছে ৩৯৮ জনের। শুধুমাত্র মুম্বইতেই গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৫৩ জন করোনা রোগী।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More