Browsing Tag

blog

জলের অক্ষর পর্ব ৫

কুলদা রায় ছেলেবেলায় গ্রামে বোরকা পরা মহিলাদের দেখেছি। তারা হয়তো হেঁটে হেঁটে কাছেপিঠের কোনও গ্রামে বাপের বাড়িতে যাচ্ছে। বা মেয়ের বাড়িতে যাচ্ছে। অথবা কবিরাজ বাড়িতে যাচ্ছে। কেউ কেউ হয়তো হাটে যাচ্ছে ক'টা আনাজ বিক্রি করতে।  এদের…

আমার সেজকাকু মান্না দে (ষষ্ঠ পর্ব)

সুদেব দে সেজকাকুকে নিয়ে লিখতে বসে প্রতিদিন আপনাদের যে আগ্রহ আর উৎসাহ পাচ্ছি তাতে নিজেরও ভালো লাগছে। গতবার কাকার রেওয়াজ নিয়ে অনেক কথাই হয়েছে। এবারের পর্বে বলব সেজকাকু মান্না দে'র প্রথম জীবনের সঙ্গীতচর্চার কথা। আগেই বলেছি, আমার বাবারা ছিলেন…

জঙ্গলমহলের জার্নাল: বাংলার সংস্কৃতিতে ব্রাত্য আদিবাসীদের নববর্ষ

মারাংবুরু মাহাত:  শুক্রবার পয়লা বৈশাখ বা ১ জানুয়ারি ছিল না। কিন্তু তাও বাংলার প্রান্তপদে পালিত হল নববর্ষ। ঢাকে, মাদলে, নতুন সাজের বাহারে, পুজোর আদিম আড়ম্বরে আহ্বান করা হল নতুন বছরকে। আলো আঁধারির জঙ্গলমহলের বন, পাহাড়ের মানুষদের কাছে ১মাঘই…

জলের অক্ষর পর্ব ৩

কুলদা রায় মুনিনাগ রবিশঙ্কর বলের বাড়ি। কিন্তু কখনও মুনিনাগ যাননি। বছর দুই-তিন আগে বরিশাল গিয়েছিলেন। সঙ্গে কথাসাহিত্যিক স্বপ্নময় চক্রবর্তী। ইচ্ছে ছিল মুনিনাগে যাবেন। মুনিনাগ নামে একটি গ্রাম তাঁরা খুঁজে পাননি। তখন আমার রাত্রি নেমেছে।…

অজিতেশ বন্দোপাধ্যায়; ভারতবর্ষীয় থিয়েটারে এক আশ্চর্য সাধক

পম্পা দেব 'কে রবে পরবাসে ? ' মায়ামন্দ্র , ব্যারিটোন ভয়েস ভেসে আসে কোন সুদূরের পথে। ইটকাঠপাথরের জঙ্গলে, সাইক্লোরামায় কে যেন বলে 'রজনী চাটুজ্যে ইজ রজনী চাটুজ্যে, মরা হাতি সোয়া লাখ'। ...দিলদার..?' বাংলা নাট্যমঞ্চে 'অজিতেশ বন্দোপাধ্যায়…

জলের অক্ষর পর্ব ১

কুলদা রায় দেশ থেকে পালিয়েই এসেছিলাম। সে সময়ে মনে হয়েছিল পালিয়ে এলেই বাঁচা যাবে। জীবনে বেঁচে থাকাটাই জরুরি। মা এসেছিল তার মাসখানেক আগে। কিছু দিন থেকে গিয়েছে আমার কাছে। আমার শার্টের একটা বোতাম লাগিয়েছে। দুএকবার মাথায় তেল ডলে দিয়েছে।…

ট্রোলের জবাবে নজিরবিহীন কুকথা অমিতাভর! বিস্মিত মেগাস্টারের গুণমুগ্ধরাও

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কেউ একজন ট্রোল করে তাঁকে বলেছিলেন, “আমি চাই আপনি করোনায় মরে যান।” তাঁকে জবাব দিতে গিয়ে আশি ছুঁই ছুঁই অমিতাভ বচ্চন যে কথা লিখলেন, তা শুধু বেনজির নয়, কতটা শালীন তা নিয়েই প্রশ্ন উঠল। অমিতাভ তাঁকে সরাসরিই বলেছেন, “তোমার বাবা কে…

এভাবেই ধরা পড়েছিল রহস্যময় মিল্কিওয়ে গ্যালাক্সি, বিশ্বের সেরা ফটোগ্রাফারদের ক্যামেরায়

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ট্রাভেল ও  ফটোগ্রাফি সংক্রান্ত ব্লগ 'ক্যাপচার দ্য অ্যাটলাস' হলো মহাবিশ্বের নয়নাভিরাম দৃশ্যপটের  খনি। প্রত্যেকবছর মিল্কিওয়ে গ্যালাক্সির অসামান্য কিছু ছবি প্রকাশ করার সাথে ব্লগ'টি  জানিয়ে দেয় মিল্কিওয়ে গ্যালাক্সির ছবি তোলার…

পরচর্চার সাইড এফেক্ট

তন্ময় চট্টোপাধ্যায় কথা হচ্ছিল সুজনদার সঙ্গে। বলছিলাম, “ধরুন চকচকে এক ছুটির সকাল। আপনি চায়ে প্রথম চুমুকটা দিয়ে সবে হয়তো থমকেছেন কাগজের প্রথম পাতায়। চেয়ে চেয়ে দেখছেন কাগজের পাতা জুড়ে থাকা শপিং মলের সস্তা অফারের বিজ্ঞাপন আর অফারের ঝুলি হাতে…

অফারপ্রেমী

তন্ময় চট্টোপাধ্যায় ডিপার্টমেন্টাল স্টোরে কত কিসিমের মানুষ। একদল তো ঠান্ডা ঘরে পা দিয়েই খুশি। চোখ বুজে “আহ আহ” বলে হাঁফ ছাড়েন। ভাবটা এই, আহা! এমন একটা আস্তানা চিরদিনর জন্য কেন হয় না! উইন্ডো শপিংয়ে খুশি আর এক দল। ট্রায়াল রুমে হানা দিয়ে…

পত্রঘাতক

তন্ময় চট্টোপাধ্যায় বছর তিরিশ আগের কথা। সিঁড়িভাঙা অঙ্কের দিন সবে তখন শেষ হয়েছে আমাদের। ঠোঁটের ওপর গোঁফের রেখা। খুব ঝামেলায় ফেলেছে অঙ্কের বাঁদর। বেজায় জ্বালাচ্ছে। উঠছে, পড়ছে। ‘পাটী’-র পাশে পাটি পেড়ে এসে বসেছে বীজগণিত। বিজ্ঞানও ভেঙে দু’ভাগ। এই…

অথ চ্যাংড়া গদ্য কথা

তন্ময় চট্টোপাধ্যায় ‘শখের পাখি’ পড়তে পড়তে মানিকবাবু বলে উঠলেন, “সুগার কোলেস্টেরল দুই-ই ধরেছে।” বলাই বলল, “কার স্যার?” মানিকবাবু বললেন, “কার আবার, আপনার লেখা গল্পের।” বিশ্বকর্মা মেরামতি হাউসের কর্ণধার মানিক মিত্র মহাশয়ের সামনে তখন আমরা দু’জন।…

লকডাউনে প্রশিক্ষণ

তন্ময় চট্টোপাধ্যায় ফোন ছাড়া এখন আর গতি নেই। ‘সোশ্যাল ডিস্টেন্সিং’-এর বাজারে যোগাযোগ যা কিছু সবই এই ফোনে। সকাল সকাল ধরেছিলাম এক শিক্ষক বন্ধুকে। গলার স্বরে বুঝলাম বেশ ব্যস্ত। ছোট্ট কথায় শেষ হল ফোনালাপ। বলল, “দাদা এখন ট্রেনিংয়ে আছি। দুপুরে আছে…

কান্না-হাসির কথা

তন্ময় চট্টোপাধ্যায় আমাদের স্কুলের বন্ধু বিলাসকে অনেকে বলত কান্নাবিলাস। তার কান্না বা কান্নার বিলাসিতা যাই বলুন না কেন, তার একটা প্রভাব পড়েছিল আমাদের জীবনে। বিলাসের রোগ ধরা পড়েছিল অনেক ছোট বয়সে। সেবারে অঙ্ক পরীক্ষায় এসেছিল, ‘রামবাবুর…

লকডাউনে কল্লোলিনী

তন্ময় চট্টোপাধ্যায় এই শহরের এক নামকরা বাজারের কোণে জ্যান্ত মাছের হাঁড়ি নিয়ে বসেন পাঁচুদা। লকডাউনে তার হাঁড়িতে এখন মরা মাছের ভিড়। “জ্যান্তরা কই দাদা?” প্রশ্ন ছুড়লে বলছেন, “এই গরমে মাস্ক-পরা মাছ কতক্ষণ আর টিকে থাকবে বাবু? তবে হ্যাঁ, একটা…

আঁতেলনামা

তন্ময় চট্টোপাধ্যায় জিন্‌সের সঙ্গে পাঞ্জাবি। এক হাতে সিগারেট, অন্য হাতে লাল চা। চৈত্রের এক বিকেলে চা-ড্ডায় মজে উঠতে দেখা গেল বেশ কিছু তরুণ বোদ্ধাকে। বিষয় অতি গম্ভীর— ‘বাঙালিয়ানার পুনরুজ্জীবন’। চা-সিগারেটের কম্বো। সঙ্গে চৈত্রের বেগুনপোড়া গরম।…

দূরবীনে চোখ

তন্ময় চট্টোপাধ্যায় যাই বলুন, স্বচ্ছতা নিয়ে এই মুহূর্তে কোনও প্রশ্ন হবে না। ভারত এখন আরও স্বচ্ছ, বাংলা আরও নির্মল। দূষণ-অসুর আপাতত ঠাঁই পেয়েছেন আইসিইউ-তে। পরিবেশ-দেবতা সদ্য রিহ্যাব ফেরত নায়কের মতো। উজ্জ্বল, চনমনে। স্বাস্থ্যবিধির ছোঁয়া লেগেছে…

গৃহবন্দির জবানবন্দি ১২

জয়দীপ চক্রবর্তী সভ্যতার এতদিন পরে আমরা আদিম গুহাবাসী মানুষের মতো এখন গৃহবাসী হয়েছি। বাইরের জগৎ শূন্য হয়ে গেছে। কোলাহল নেই, ঝাঁ-চকচক দোকান বাজার, সিনেমা থিয়েটার সবই বন্ধ। আমরা যৌথ আড্ডা ভুলে গেছি। মিটিং মিছিল অবরোধে গলা ফাটানোও আপাতত স্থগিত।…

গৃহবন্দির জবানবন্দি ১১

জয়দীপ চক্রবর্তী এক মাস হতে চলল ঘরের মধ্যেই আটকা পড়ে আছি। রোদে পুড়ছি না। জলে ভিজছি না। এই গরমে কুলকুল করে ঘামতে ঘামতে ক্লাসে চিৎকার করছি না সারাদিন। মাঝেমধ্যে এক-আধ দিন সকালে উঠে বাজার যাওয়া। বাজার-টাজারে গেলে একটু হাঁটাহাঁটি হয়, দু-পাঁচজনের…

দেখা হোক রাস্তায় আবার

অংশুমান কর লকডাউন ঠিকঠাক মানা হচ্ছে কি না তা সরেজমিনে খতিয়ে দেখতে কেন্দ্রীয় সরকার পর্যবেক্ষকদের পাঠিয়েছে আমাদের রাজ্যে। এ নিয়ে রাজনীতির চাপান-উতোর চলছে। মুখ্যসচিব জানিয়েছেন যে, কেন্দ্রীয় দল আসছে এই খবর তিনি পাওয়ার পনেরো মিনিটের মধ্যেই এই…

পাচ্ছে হাসি চাপতে গিয়ে, পাচ্ছে হাসি চোখ বুজে

অংশুমান কর হাসি মিলিয়ে গেছে এই পৃথিবী থেকে। উৎকণ্ঠার এক অদ্ভুত জগতে আমরা বাস করছি। কবে যে এই উৎকণ্ঠা থেকে পরিত্রাণ পাব আমরা কে জানে! যাঁরা প্রথমদিকে ভেবেছিলেন আমাদের রাজ্য তুলনায় নিরাপদ আছে, তাঁরাও ক্রমশ সেই ভুল ভাবনার থেকে বেরিয়ে আসছেন,…

গৃহবন্দির জবানবন্দি ১০

জয়দীপ চক্রবর্তী ছোটবেলায় আমি যখন ইস্কুলে পড়তাম, তখন থেকেই আমার শুয়ে শুয়ে পড়ার অভ্যাস। পড়ার চেয়ার টেবিল তো ছিল না আমাদের। হয় মাদুর পেতে পড়তে বসা অথবা বিছানার ওপরে। আমি অবশ্য পড়তে বসতাম না। চিরকালই আমার পড়তে শোয়া। বুকের নীচে বালিশ। সামনে খোলা…

নিখিল ভারত… সমিতি

সুন্দর মুখোপাধ্যায় শোভাবাজার ঘাট থেকে চক্ররেলের লাইন ধরে আর একটু দক্ষিণে এগোলে একটা হাফ নিরিবিলি জায়গা আছে। বেশি না, মিনিট পাঁচেক হাঁটতে হবে। হাফ নিরিবিলি বললাম এই কারণে, মানুষজন আছে অথচ নেই। মানে কেউ এখানে বিশেষ দাঁড়ায় না। পাশের রাস্তা…

করোনার বিরুদ্ধে কি ‘যুদ্ধ’ চলেছে?

অংশুমান কর আমাদের বৈঠকখানা-কাম-লাইব্রেরিতে একটা তির-ধনুক রাখা আছে। সেই কবে কিনেছিলাম। ‘কৃষ্ণসায়র উৎসব’ থেকে। আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের যে আবাসনে থাকি, তার গায়েই কৃষ্ণসায়র। বিশাল এক জলাশয়। সেটিকে দীর্ঘদিন পার্কে রূপ দেওয়া হয়েছে। পার্কটি…

দুনিয়ার পর আরও দুনিয়ায় ভিড়ে গিয়েছে

অংশুমান কর স্কটল্যান্ড থেকে কিনে আনা একটি ছোট্ট স্যুভেনির। তাতে এডিনবরা ক্যাসেলের ছবি। রয়েছেন একজন স্কটিশ পাইপারও। তারই পাশে রাখা বার্লিন থেকে কিনে আনা একটি কাপ। তাতে লেখা ‘আই লাভ বার্লিন’। এইরকম সব ছোটখাট স্মৃতিস্মারক। অন্য অনেকের ঘরের…

গৃহবন্দির জবানবন্দি ৯

জয়দীপ চক্রবর্তী দীর্ঘ লকডাউনের ক্লান্তি আর একঘেয়েমি কাটানোর জন্যে দেশের সরকারের চিন্তার অন্ত নেই। কখনও বলছেন ব্যালকনিতে দাঁড়িয়ে হাততালি দিতে, কখনও বলছেন শাঁখ-কাঁসর বাজাতে, আবার কখনও মিনিট নয়েকের স্বেচ্ছা অন্ধকারের অস্বস্তি থেকে পুনরায় আলোতে…

ধুলো ঝেড়ে ছবিরা বেরোয়

অংশুমান কর “মার ঝাড়ু মার ঝাড়ু মেরে ঝেঁটিয়ে বিদেয় কর”-– এই হচ্ছে কমবেশি মধ্যবিত্ত বাঙালিদের ধুলোর প্রতি ‘অ্যাটিটুড’। ধুলো তাড়ানোর জন্য তাই ঘরে ঘরে প্রস্তুত থাকে ঝাঁটা, নানা রকমের, নানা সাইজের ঝাড়ন, আর কখনও কখনও এমনকি ভ্যাকুয়াম ক্লিনারও! ধুলো…

ফোনালাপ

সুন্দর মুখোপাধ্যায় আপনাদের আশ্বস্ত করছি, এবার আর তরল বা আপাত সরল কিন্তু ভেতরে কুটিল ও জটিল কোনও গদ্যাংশ আপনাদের সহ্য করতে হবে না। আপনাদের কাছে এবার কেবল তিনটি ফোনালাপ তুলে দিচ্ছি। এর দায়, ফোনের দু’প্রান্তে যে দু’জন ছিলেন, শুধুমাত্র তাদের।…

ঘরের ভিতরে ঠিক কী কী আছে এখনও অজানা

অংশুমান কর এইবার ভয় লাগছে। না, কবে এই অন্তরিন দশা থেকে মুক্তি পাব সেজন্য নয়। ভয় লাগছে অন্য কারণে। মনে হচ্ছে এই যে ঘরের মধ্যে আমি আছি, এই ঘরটিকে আমি চিনি তো? অন্তরিন জীবনের প্রথম দিকে এই রকম অদ্ভুত একটি চিন্তা আমার পেটের কাছে ছুরি উঁচিয়ে…

গৃহবন্দির জবানবন্দি ৮

জয়দীপ চক্রবর্তী বাংলা বছরের দ্বিতীয় দিন। দেওয়ালে ঝোলানো ক্যালেন্ডার বদলে গিয়েছে গতকাল। পয়লা থেকে নতুন পাঁজি। গতপরশু রাত বারোটা বাজার পর থেকেই ফোনে নেট অন করা যাচ্ছিল না। হোয়াটসঅ্যাপ মেসেঞ্জারে নতুন বছরের শুভেচ্ছা সুনামির মতো আছড়ে পড়েছে।…

বান্দ্রার পরে আর শুকনো কথায় চিঁড়ে ভিজবে কি?

অংশুমান কর দেখে মনে হচ্ছে যে, সংখ্যাটা হবে প্রায় হাজার তিনেক। কোনও কোনও চ্যানেলে বলছে অবশ্য সংখ্যাটা আড়াই হাজার। এঁরা ভিড় করেছিলেন মুম্বাইয়ের বান্দ্রা স্টেশনে। এঁদের বলা হচ্ছে ‘পরিযায়ী শ্রমিক’। যদিও এই শব্দবন্ধটি নিয়ে ইতিমধ্যেই অনেক আপত্তি…

মৌতাত

সুন্দর মুখোপাধ্যায় সন তেরোশো তেতাল্লিশ, ইংরেজির উনিশশো ছত্রিশে চরণবালা স্মৃতি মহিলা বিদ্যামন্দিরের উদ্বোধনে পণ্ডিত তারিণী চক্রবর্তী, বিএ (ডাবল)-এর অসাধারণ বাগ্মীতায় শ্রোতাগণ মুগ্ধ হয়েছিলেন। তারিণীবাবু বলেছিলেন, ‘‘কিছুদিন পূর্বে এন্ট্রান্স…

যেকথা বলিনি আগে

অংশুমান কর আজ আমাদের ছুটি। এই একটা দিন আমরা ছুটি নেব। নেবই নেব। কেউ আমাদের গান গাইতে দেখবে না, কিন্তু আজ আমরা গান গাইব। কেউ আমাদের নাচতে দেখবে না, কিন্তু আজ আমরা নাচব। কেউ আমাদের কবিতা বলতে দেখবে না, কিন্তু আজ আমরা কবিতা বলব। মৃত, নিরন্ন,…

গৃহবন্দির জবানবন্দি ৭

জয়দীপ চক্রবর্তী বাড়ির বাইরে বেরনোর উপায় নেই। আর সকলের মতোই আমার জগৎ এখন ঘর, বারান্দা, ছাদ আর আর বাড়ির সামনের এক ফালতি ফাঁকা জমি। প্রথম প্রথম অস্থির লাগছিল। এখন ক্রমশ সয়ে আসছে। যেমন প্রতিবছরে সহ্য করে নিই বোশেখ-জষ্ঠির কাঁঠাল পাকানো গরম অথবা…

টাটকা মাছ কেনে প্রতিদিন?

অংশুমান কর বাজারে যেতে ভয় করে এখন। অথচ না গিয়েও উপায় নেই! লকডাউনের এই পর্বে এখনও পর্যন্ত বাজারে গিয়েছি মোটে তিনদিন। ভাবছেন যে, প্রচুর জিনিস কিনে রেখে দিয়েছি ফ্রিজে আর তাই দিয়েই চালিয়ে নিচ্ছি। তাই তো? না, মোটেই তা নয়। অত বড় ফ্রিজই নেই আমাদের…

সব্বোনাশ

সুন্দর মুখোপাধ্যায় দুটো বাংলা শব্দ, প্রায় সমোচ্চারিত এবং প্রায় একই অর্থ বহনকারী-- সর্বনাশ ও সব্বোনাশ। অর্থের সামান্য যে প্রভেদ বাংলা অভিধান বা শিক্ষকবৃন্দ বহু চেষ্টা করেও বুঝিয়ে দিতে পারেননি। অথচ সুপ্রাচীন মদ্যপ বংশীবদন সাহা কত সহজে, মাত্র…

কেরল পারলে, বাকি দেশ পারবে না কেন?

অংশুমান কর মার্চের মাঝামাঝি, যখন দেশ জুড়ে পরিস্থিতি খারাপ হতে থাকল, বাড়তে লাগল করোনা আক্রান্তের সংখ্যা, তখন ছিল একেবারে প্রথম সারিতে। একটা সময়ে আক্রান্তের নিরিখে দেশে প্রথম স্থান অধিকারও করেছিল রাজ্যটি। দেশের মধ্যে প্রথম করোনা আক্রান্তের…

গৃহবন্দির জবানবন্দি ৬

জয়দীপ চক্রবর্তী বড়লোক, মানে বিত্তবান লোক হলেই যে মানুষের মন বড় হবে এমন কোনও কথা নেই। আমাদের ছোটবেলায় গ্রামে থাকতে বোস জেঠিমাকে দেখেছিলাম বাড়িতে পুজোগন্ডা হলেই খরচা হবার ভয়ে কেমন যেন নেতিয়ে পড়তেন। বাজারে গিয়ে পোকা ধরা চাল, চেলি গামছা,…

সময়, সবুজ ডাইনি

অংশুমান কর সময়ের সঙ্গে যেন একটা যুদ্ধ চলেছে। দিন যেন আর কাটতেই চায় না। আর কতদিন এই ঘরবন্দি? ক্যালেন্ডার দেখছেন অনেকেই। অনেকে ঘড়ির কাঁটার ঘোরা দেখছেন। ঘড়ি বলতেই মনে পড়ল যে, আমাদের ঘরের দু-দুটো ঘড়ি খারাপ হয়ে গিয়েছিল ক’দিন আগে। মানে এই অন্তরিন…

ছাতা

সুন্দর মুখোপাধ্যায় বিশু পালের ছাতা ধার নিয়েছিলেন বিনোদবাবু। সে এক ঝরো ঝরো বর্ষার ভরসন্ধেবেলার কাহিনি, মাস ছয়েক হতে চলল। মাঝে শীত গেছে, বসন্তও চলে গেছে। এই প্রখর রোদে এসে বিশু পালের খেয়াল পড়ল ছাতা নেই। সেই বর্ষার সন্ধেতে, দু’পেগ হুইস্কির পর…

শিশুদের ভাল রাখার উপায় সম্বন্ধে যে দু-একটি কথা আমি জানি

অংশুমান কর শিরোনামে লিখলাম বটে যে, দু-একটি কথা আমি জানি। কিন্তু আসলে আমি একটি কথাই জানি। বাকি কথাগুলি শোনা কথা। এই অন্তরিন অবস্থায় শিশুদের নিয়ে মা-বাবারা পড়েছেন বেশ সমস্যায়। বড়রাই হাঁফিয়ে উঠেছে। মুক্তি চাইছে। তো শিশুদের কীভাবে সামলাবেন…

গৃহবন্দির জবানবন্দি ৫

জয়দীপ চক্রবর্তী অংক যে একটা ভালবাসবার মতো বিষয় হতে পারে কস্মিনকালে মনে হয়নি আমার। বরং ছোটবেলা থেকে মনে হত সাবজেক্টটায় কী জানি একটু গণ্ডগোল আছে। নইলে যে চৌবাচ্চায় ফুটো আছে জানি, তাইতেই জল ঢেলে বেকার সময় এবং জলের অপচয় করতে যাব কেন এই…

লকডাউন কি বাড়ানো উচিত হবে?

অংশুমান কর তীর্থের কাকের মতো সকলে তাকিয়ে ছিলেন ১৫ এপ্রিলের দিকে। ভেবেছিলেন, ওইদিন এই অন্তরিন অবস্থা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে। কিন্তু মনে হচ্ছে যে, সে গুড়ে বালি। আজ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে মিটিং ছিল সংসদীয় দলের নেতাদের। সেই মিটিংয়ে এই বিষয়টি…

গামছা

সুন্দর মুখোপাধ্যায় হাতিবাগানে বরদাচরণ সরকার প্রতিষ্ঠিত একটা প্রাচীন দোকান ছিল। তাতে বিক্রি হত লুঙ্গি, গেঞ্জি, গামছা ও খাদি বস্ত্রাদি। সাইনবোর্ডে জ্বলজ্বল করে লেখা ছিল ‘ইস্টেড ১৯৩৬। প্রোঃ স্বাধীনতা সংগ্রামী শ্রী বরদাচরণ সরকার’। সঙ্গত কারণেই…

দাদাগিরি ‘আনলিমিটেড’

অংশুমান কর দাদারা কারও কথা শোনেন না। মানে যাঁরা সত্যিকারের দাদা, তাঁরা। তাঁদের দাদাগিরি ‘আনলিমিটেড’। তেমনটাই মনে হল আর কী! দাদারা ততক্ষণই আমাদের কাছে ‘দাদা’ যতক্ষণ আমরা তাঁদের সব কথা শুনে চলছি। তাঁদের কথা শুনে চললে, তাঁরা উদার, আমরা তখন…

গৃহবন্দির জবানবন্দি ৪

জয়দীপ চক্রবর্তী ওপর থেকে আমায় যতই কাঠখোট্টা, দড়কচা মারা, কটু, তিক্ত মনে হোক, আমার ভেতরটা মিষ্টি। বলতে নেই, প্রয়োজনের থেকে খানিক বেশিই মিষ্টি। অর্থাৎ আমি মধুমেহর রুগি। টাইপ টু। ইনসুলিন নিতে হয় না, কিন্তু দু’বেলা মেটফরমিন ট্যাবলেট গিলতে হয়…

লুজ ক্যারেক্টার

সুন্দর মুখোপাধ্যায় বিষয়টা এমন গুরুতর যে, এ নিয়ে লিখতে যাওয়া যে সে কম্মো নয়। যারা প্রতিষ্ঠিত লুজ ক্যারেক্টার তাদের কথা বাদই দিন, যেগুলো উঠতি, তারাও হাফ দার্শনিক। আপনি কিছু বলার আগেই তারা সেটি লুফে নেয়। অনেক ভেবেচিন্তে দেখেছি, লুজ ক্যারেক্টার…

যতবার আলো জ্বালাতে চাই…

অংশুমান কর আজ একটু ছন্দপতন হোক। একটু তাল কাটুক। সোজা কথা সোজা করেই বলা যাক আজ। ৫ এপ্রিল রাত্রি ৯টায় ৯ মিনিটের জন্য দেশে এল অকাল দীপাবলি। ঘরে ঘরে যেমন নিভে গেল আলো, তেমনই জ্বলে উঠল মোমবাতি, প্রদীপ, এমনকি মোবাইলের ফ্ল্যাশলাইট। তেমনটাই অনুরোধ…

খসে যেত মিথ্যা এ পাহারা…

অংশুমান কর সারাদেশে যে মুখোশের চাহিদা এইভাবে হঠাৎই বেড়ে যাবে, কেউ কি কোনওদিন ভেবেছিল? মুখোশ? হ্যাঁ, মুখোশের কথাই বলছি। ‘মাস্ক’ মানে তো মুখোশই, নাকি? মাস্ক হল সেই জিনিস যা দিয়ে মুখ ঢাকা যায়। মানে মুখোশ। তো, যে কথা বলছিলাম। মার্চের গোড়া থেকেই…

গৃহবন্দির জবানবন্দি ৩

জয়দীপ চক্রবর্তী মর্কটের মতো চেহারা, বাঁশকাঠি চালের মতো মুখ আর ক্যাবলা ক্যাবলা লুক বলে ছোটবেলা থেকে কেউ কখনও আমার প্রেমে পড়তে চায়নি চট করে। তখন ইস্কুলে পড়ি। চড়কের মেলায় একজন ম্যাজিশিয়ান ভাগ্য গণনা করছিল গাছতলায় বসে। আমি সামনে গিয়ে দাঁড়ালাম।…

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More