মোরিনহোকে ছাঁটাই করল টটেনহ্যাম, ‘দ্য স্পেশাল ওয়ানে’র জমানা কি অস্তাচলে? উঠছে প্রশ্ন

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দিন ছয়েক বাদে লিগ কাপের ফাইনাল। তার আগেই দলের ম্যানেজার জোসে মোরিনহোকে ছাঁটাই করল টটেনহ্যাম হটস্পার। চলরি মরশুমের শুরুটা ভালো হলেও ফর্ম ধরে রাখতে পারেনি স্পার্স। এফ এ কাপ থেকে বিদায়ের মধ্যে প্রিমিয়ার লিগের লড়াই থেকেও ছিটকে যায় তারা। তার উপর ইউরোপা লিগে ডিনামো জাগ্রেবের কাছে অপ্রত্যাশিত হার এবং সেই সঙ্গে প্রতিযোগিতা থেকে পত্রপাঠ বিদায় মোরিনহোকে রীতিমতো কোণঠাসা করে ফেলেছিল।

২০১৯ সালে সাড়া জাগিয়ে লন্ডনের ক্লাবে যোগ দেন ‘দ্য স্পেশাল ওয়ান’। এর আগে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডে কোচিংয়ের মর্মান্তিক ধাক্কা সামলে কীভাবে টটেনহ্যামকে গড়ে তোলেন, সেদিকেই বিশ্ব ফুটবলের নজর ছিল। যদিও যাত্রার শুরুটা জমকালো হয়েছিল। লিগে ১৪ তম পজিশনে থাকা টিমকে ছ’নম্বরে টেনে আনেন তিনি।

কিন্তু নতুন সিজনে সেই ক্যারিশমা বজায় রাখতে ব্যর্থ হন মোরিনহো। দলের অন্দরেও ছড়িয়ে পড়ে ক্ষোভ। ডেলি আলি, অউরিয়ের, স্যাঞ্চেজের মতো একাধিক ফুটবলারকে আচমকা দূরে ঠেলে দেন তিনি। চালু করেন রক্ষণাত্মক ফুটবল। দুর্বল ডিফেন্স মেরামত না করেই ডিফেন্সিভ ফুটবল আমদানি খেলোয়াড়দের মধ্যে অবিশ্বাস বাড়িয়ে তোলে। তা ছাড়া স্ট্রাইকার হ্যারি কেনের ওপর অতিরিক্ত নির্ভরতায় একের পর এক জেতা ম্যাচ হাতছাড়া করে স্পার্স। পরপর কম্পিটিশন থেকে বিদায় নেয় মোরিনহো বাহিনী। শিবরাত্রির সলতের মতো জ্বলতে থাকে লিগ কাপ। ছ’দিন বাদেই ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে ম্যাচ সিটির মুখোমুখি হবে টটেনহ্যাম। তার আগেই কোচ বদলের সিদ্ধান্ত কেমন প্রভাব আনে, এখন সেটাই দেখার।

অন্যদিকে মরশুমের শেষ লগ্নে এভাবে ছাঁটাইয়ের পর পোর্তুগিজ ম্যানেজারের ভাগ্য নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। তবে কি মোরিনহো-যুগ অস্তাচলের পথে? এর আগে বিনা ট্রফিতে কোনও ক্লাব ছাড়েননি তিনি। এমন ঘটনা এই প্রথম। নয়া ঘরানার ফুটবলে ময়দানের পোড়খাওয়া চাণক্য নতুন কোনও ম্যাজিক দেখাতে পারেন কিনা, সেদিকেই চোখ অনুরাগীদের।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More