ধামসা মাদল বাজিয়ে ত্রিশূল, তির-ধনুক নিয়ে আদিবাসীদের অস্ত্র মিছিল জেলায় জেলায়

কখনও রাস্তা সংস্কারের দাবি, তো কখনও বেআইনি ভাটিখানার প্রতিবাদ, কখনও মালদা, কখনও উত্তর চব্বিশ পরগনা, হাতে তির-ধনুক নিয়ে ধামসা মাদল বাজিয়ে জেলায় জেলায় বিক্ষোভ মিছিলে সামিল হলেন এলাকার আদিবাসীরা।

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সোমবার উত্তর ২৪ পরগনার বসিরহাট মহকুমা অঞ্চলের টাউন হল থেকে ইছামতি ব্রীজের পুলিশ সুপারের অফিস পর্যন্ত প্রায় দুই কিলোমিটার রাস্তাজুড়ে মিছিল করলেন আদিবাসী তপশিলি জাতি উন্নয়ন সমিতির সদস্যরা। ত্রিশূল তির-ধনুক হাতে নিয়ে ধামসা মাদল বাজিয়ে মিছিলে হাঁটেন কয়েকশো আদিবাসী মহিলা-পুরুষ। এলাকার বেআইনি ভাটিখানা ভাঙার দাবিতেই এই মিছিল বলে জানা গেছে।সোমবার ২১শে সেপ্টেম্বর দুপুর ১২টা নাগাদ মিছিল করে পুলিশ সুপারের কাছে গিয়ে এ সংক্রান্ত স্মারকলিপি জমা দিয়ে আসেন তাঁরা।

সংবাদমাধ্যমের প্রশ্নের উত্তরে এদিন সমিতির তরফে বলা হয়, আদিবাসী অধ্যুষিত হিঙ্গলগঞ্জ সন্দেশখালি অঞ্চলে বেআইনিভাবে মদের ভাটি চলছে দীর্ঘদিন ধরে। আদিবাসী মানুষজন এই বেআইনি মদে আসক্ত হয়ে পড়েছে। প্রতিবাদ করায় এই মদ্যপদের হাতে তাদের স্ত্রী সহ পরিবারের অন্যান্যরা প্রায়ই মানসিক ও শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। বারবার অভিযোগ জানানোর পরেও নির্বিকার পুলিশ প্রশাসন। তাই প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করার জন্যই এই মিছিলের আয়োজন।

আদিবাসী তপশিলি জাতি উন্নয়ন সমিতির নেতা সুকুমার সরদার এদিন সংবাদমাধ্যমে বলেন, এলাকার সমাজবিরোধীরা যাতে মিছিল চলাকালীন তাদের উপর হামলা চালাতে না পারে, তাই তারা হাতে ত্রিশূল নিয়ে মিছিল করছেন।পাশাপাশি তিনি দাবি করেন আদিবাসী সমাজকে তার প্রাপ্য সব রকম সুযোগ-সুবিধা ও সংরক্ষণ দিতে হবে।

তিনি বলেন, “২০১৮ সালে আমাদের সমস্যা ও দাবিদাওয়ার কথা বসিরহাট পুলিশ সুপার কেসবরী রাজকুমারকে লিখিতভাবে জানিয়েছিলাম। কিন্তু কোনও সুফল মেলেনি। আজ নতুন পুলিশ সুপার কংকর প্রসাদ বাড়ুইয়ের কাছে পুনরায় লিখিতভাবে আবেদন জানাই। আদিবাসী সমাজ সুরক্ষা এবং নিরাপত্তা যাতে অটুট থাকে তার দাবি জানিয়েছি আমরা। এলাকায় মদের ভাটি উচ্ছেদ ও সমাজবিরোধীদের কার্যকলাপ বন্ধ করার সম্পূর্ণ দায়িত্বও নিতে হবে প্রশাসনকে। না হলে আগামী দিনে আমরা বৃহত্তর আন্দোলনের পথে যেতে বাধ্য হব।”

অন্যদিকে সোমবার সকাল ন’টা থেকে মালদার হবিবপুর থানার ঝিনঝিন পুকুর এলাকায় মালদা নালাগোলা রাজ্য সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান রাঘববাটি গ্রামের আদিবাসী বাসিন্দারা।

হবিবপুর ব্লকের বুলবুলচন্ডী গ্রাম পঞ্চায়েতের রাঘববাটি এলাকার বাসিন্দাদের অভিযোগ, ঝুনঝুনি পুকুর থেকে রাঘববাটি পর্যন্ত সরকপথটির দীর্ঘদিন ধরে বেহাল অবস্থায় পড়ে আছে। এ বিষয়ে প্রশাসনের কাছে বহুবার অভিযোগ জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি। তারই প্রতিবাদে ও পাকা রাস্তার দাবিতে সোমবার ওই এলাকার বাসিন্দারা ধামসা মাদল বাজিয়ে হাতে প্ল্যাকার্ড নিয়ে প্রায় এক ঘণ্টা অবরোধ করে রাখেন মালদা নালাগোলা রাজ্য সড়ক। অবরোধের জেরে ওই অঞ্চলে ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান হবিবপুর ব্লকের বিডিও ও হবিবপুর থানার পুলিশ। প্রশাসনের তরফে রাস্তা সংস্কারের আশ্বাস দেওয়ার পর গ্রামবাসীরা অবরোধ তুলে নেন। এরপর যান চলাচল স্বাভাবিক হয় বলে জানা গেছে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More