জম্মু-কাশ্মীরের প্রেস এনক্লেভে উড়ল তেরঙা! স্বাধীনতার পরে এই প্রথম

দ্য ওয়াল ব্যুরো: স্বাধীনতার পর থেকে কখনও জাতীয় পতাকা উড়তে দেখেনি লাল চকের প্রেস এনক্লেভ। বুধবার অবশেষে তৈরি হল ইতিহাস। লাল পাথরের দেওয়ালের গায়ে উড়ল ভারতের তেরঙা।

এদিন জম্মু-কাশ্মীরের শ্রীনগরে লাল চকের প্রেস এনক্লেভে প্রথমবার জাতীয় পতাকা ওড়ার পরে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেন সেই ঐতিহাসিক ছবি। সেই সঙ্গে ট্যুইটারে তিনি লেখেন, “স্বাধীনতার পর এই প্রথম তেরঙা উড়ল প্রেস এনক্লেভে।”

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী, জম্মু-কাশ্মীরের লেফটেন্যান্ট গভর্নরের নির্দেশে প্রেস এনক্লেভে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়েছে। মঙ্গলবারই শ্রীনগরের শের-ই-কাশ্মীর ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্স বা এসকেআইএমএস হাসপাতালে তেরঙা উত্তোলন করা হয়েছিল। কাশ্মীরের ডিভিশনাল কমিশনার পিকে পোল গত সপ্তাহে এ বিষয়ে নির্দেশ জারি করেছিলেন। উপত্যকা জুড়ে সম্প্রতি বিভিন্ন ক্ষেত্রেই জারি হচ্ছে পতাকা উত্তোলন সংক্রান্ত নানা নির্দেশিকা। এবার তা থেকে বাদ গেল না লাল চকের প্রেস এনক্লেভও।

তবে শুধু প্রেস এনক্লেভ বা হাসপাতালেই নয়, মার্চে তেরঙা উত্তোলনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল জম্মু-কাশ্মীরের স্কুলগুলিতেও। প্রশাসনের তরফে বলা হয়েছিল, উপত্যকার সমস্ত সরকারি স্কুলে জাতীয় পতাকা সম্বলিত সাইনবোর্ড টাঙাতে হবে। এই কাজের জন্য স্কুলগুলিকে আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছে বলেও জানা গেছে।

২০১৯ সালের আগস্টে ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিল করার মাধ্যমে জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষাধিকার বিলোপ করেছে কেন্দ্র সরকার। তারপর থেকে একাধিক বার একাধিক ইস্যুতেই অশান্ত হয়ে উঠেছে উপত্যকার পরিস্থিতি। সেই পরিপ্রেক্ষিতে লাল চকের প্রেস এনক্লেভে তেরঙা ওড়ার ঘটনা যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞ মহলের একাংশ।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More