সুচিত্রা সেনের চরিত্রে ঋতুপর্ণা, গৌরী দেবী শ্রাবন্তী! আসছে উত্তমকুমারের বায়োপিক

দ্য ওয়াল ব্যুরো: উত্তম কুমারের বায়োপিক তৈরি হচ্ছে, যাতে দেখা মিলবে সুচিত্রা সেন থেকে গৌরী দেবীর। বেশ কিছুদিন ধরেই টলিপাড়ায় জোর গুঞ্জন এই নিয়ে। এর আগে উত্তম কুমারকে নিয়ে ‘মহানায়ক’ সিরিয়াল বানিয়েছিলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় ও বিরসা দাশগুপ্ত। নামভূমিকায় ছিলেন প্রসেনজিৎ নিজেই এবং সুচিত্রা সেনের ভূমিকায় পাওলি দাম। এবার উত্তম কুমারের সম্পূর্ন ফিচার ফিল্ম বানাচ্ছেন পরিচালক অতনু বসু।

একদিকে যেমন পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় তৈরি করছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের বায়োপিক ফিল্ম, তেমনই এবার বড় খবর উত্তম কুমারের বায়োপিক ফিল্ম বানাচ্ছেন অতনু বসু। অতনুর ছবিটির সঙ্গে জড়িয়ে আছে মুম্বাই ব্র্যান্ড, তাই নিঃসন্দেহে এই ছবির বাজেট অনেক বেশি।

এ ছবিতে উত্তমকুমারের চরিত্র কে করছেন সেই বিষয়ে নিশ্চিতভাবে কিছু জানা না গেলেও, ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত থাকছেন মহানায়িকা সুচিত্রা সেনের রোলে, তা একপ্রকার নিশ্চিত। প্রায় একবছর ধরে পরিচালক অতনুর সঙ্গে কথা চলছে টলিলক্ষ্মী ঋতুপর্ণার। অবশেষে মহানায়কের বায়োপিক হতে চলেছে এবং ঋতুপর্ণাই ‘সুচিত্রা’।

অতনু বসু দু’বছর ধরে মুম্বাইয়ের বাসিন্দা। অতনু এর আগে ‘ব্ল‌্যাক কফি’, ‘আত্মজা’, ‘বিপ্লব আজ ও কাল’-এর মতো ছবি পরিচালনা করেছেন। পরিচালক সেভাবে মুখ খোলেননি এই ছবি নিয়ে, কিন্তু বলেছেন, “একটু অপেক্ষা করুন, অনেক সারপ্রাইজ পাবেন।” যতদূর জানা যাচ্ছে, ২০২১-এর অন‌্যতম বড় বাজেটের এবং ঐতিহাসিক গুরুত্বসম্পন্ন ছবি হতে চলেছে এটি। প্রযোজক মুম্বইয়ের একটি সংস্থা।

এ ছবির প্রেক্ষাপট ভীষণ চ্যালেঞ্জিং এবং প্রচারের আলো পাবার মতোই বটে। কারণ উত্তমকুমার ও সুচিত্রা সেন। বাঙালির চিরন্তন নস্ট্যালজিয়া। তবে বাঙালি কি মেনে নেবে সুচিত্রা সেনের ভূমিকায় ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তকে? ঋতুপর্ণা একজন জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত, আর্ট ও বাণিজ্যিক ঘরানার সফল নায়িকা। সুচিত্রা সেনের পরবর্তী সময়ে টলিউডের যে গতি, তার সামনের সারিতে ঋতুপর্ণার নাম আসবেই। কিন্তু খোদ সুচিত্রার চরিত্রে ঋতুপর্ণা পাশ করতে পারবেন কিনা দর্শকমনে, সেটাই এখন দেখার। ঋতুপর্ণা যেহেতু সুচিত্রা সেন, তাই উত্তম যে প্রসেনজিৎ হতেই পারেন, তাই নিয়েও জল্পনা তুঙ্গে। তবে ছবির নামভূমিকা নিয়ে মুখে কুলুপ পরিচালকের। তিনি দাবি করেছেন, এখনও চলছে কাস্টিং। সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়নি। পরিচালক এসেছেন কলকাতায়। কলকাতার ভবানীপুরের উত্তম কুমারের বাড়ি ঘিরেই হতে পারে ছবির শ্যুটিং।

ছবির কাস্টিং সম্পর্কে জানা যাচ্ছে আরও একটি চমকপ্রদ খবর। এই ছবিতে খুব সম্ভবত উত্তম কুমারের স্ত্রী গৌরী দেবীর চরিত্রে দেখা যাবে শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়কে। শাশ্বত চট্টোপাধ‌্যায়ের থাকার সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। প্রায় ৭০ জন শিল্পী নাকি থাকবেন বলে খবর। টলিউড থেকে কে থাকবেন না, সেটাই এখন প্রশ্ন!

তবে একটু পেছন ফিরে যদি দেখা যায়, ঋতুপর্ণাই যে কেবল একমাত্র সুচিত্রা হতে চলেছেন তা কিন্তু নয়। শতাব্দী রায় তাঁর ছবি পরিচালনার হাতেখড়ি করেছিলেন সুচিত্রা সেনের ব্যক্তিগত জীবন ও অন্তরাল পরবর্তী অধ্যায় নিয়ে। ছবির নাম ছিল ‘অভিনেত্রী’। সেই ছবিতে সুচিত্রা সেন হন শতাব্দী রায় নিজেই এবং উত্তম কুমার হন টোটা রায়চৌধুরী। শতাব্দীর প্রথম পরিচালনা আলোচিত হলেও বক্সঅফিসে মুখ থুবড়ে পড়েছিল এবং দর্শকমহলে হাস্যরসের উদ্রেক করে কিছু দৃশ্য।

ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তও যে এই প্রথমবার সুচিত্রা সেন হচ্ছেন সেটা কিছুটা ঠিক হলেও, আগেও তিনি একাধিক বার সুচিত্রা সেন সেজেছেন, নামে বা চরিত্রগত ভাবে।

ঋতুপর্ণা একটি ছবিতে অভিনয় করেছিলেন, ‘মহানায়িকা’। তাতেও নামভূমিকায় ছিলেন ঋতুপর্ণা। নায়িকার নাম শকুন্তলা সেন। নামেও সুচিত্রা সেনের ছোঁয়া। গল্পের প্রেক্ষাপটে অনেকটাই মিল ছিল সুচিত্রা সেনের সঙ্গে। এছাড়াও ঋতুপর্ণা অভিনীত ‘মিসেস সেন’ ছবিটিও সুচিত্রার ইন্ডাস্ট্রি নামধারী, গল্প যদিও আলাদা।

এখন অতনু বোসের ছবিতে পুরোপুরি সুচিত্রা সাজার সুবর্ণ সুযোগ পাচ্ছেন ঋতুপর্ণা। যতদূর জানা গেছে, ছবির নাম ভাবা হয়েছে ‘অজানা উত্তম’। এখন উত্তম কুমার কে হবেন, সেটাই দেখার। তবে উত্তম কুমার মানে তো সমগ্র স্বর্ণযুগ। তাই স্বর্ণযুগের আরও কিছু প্রয়াত লেজেন্ডারি অভিনেতা-অভিনেত্রীকে দেখা যাবে এই ছবিতে। সেই রোলগুলিও কারা করছেন সেই নিয়েও জল্পনা তুঙ্গে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More