একদল অচেনা ট্যুরিস্টের সঙ্গে সে কী খেলা চিতাবাঘের! ঠিক যেন পোষা কুকুর, ভিডিও দেখে তাজ্জব সকলে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: পাহাড়ি পথে গাড়ি থেকে নেমে রাস্তার ধারে দাঁড়িয়ে আছেন কয়েক জন। ট্যুরিস্ট হতে পারেন, হতে পারেন স্থানীয় মানুষও। হঠাতই একটি চিতাবাঘ হেঁটে হেঁটে এগিয়ে আসছে তাঁদের দিকে। সে এসে একটু ঘুরে মানুষগুলোর কাছে চলে গেল। ভাবটা যেন পোষা কুকুর ঘুরঘুর করছে পায়ে। কয়েক জন লাফিয়ে সরে গেলেও, যাঁরা দাঁড়িয়ে রইলেন তাঁদের গায়ে উঠে খেলাও করল চিতাবাঘটি।

মানুষের প্রতি চিতাবাঘের এমন বন্ধুত্বপূর্ণ খেলার ভিডিও সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে টুইটারে। দেখে চমকে উঠেছেন সকলে। মানুষগুলির আচরণ অবশ্য অতটাও বন্ধুত্বপূর্ণ ছিল না, সে যাই হোক না কেন, চিতাবাঘের এমন আচরণ খুব সাধারণ ও স্বাভাবিক নয় বলেই জানিয়েছেন বনকর্তারা।

বনকর্তা প্রবীণ কাসওয়ান ভিডিওটি পোস্ট করে লিখেছেন, “এই চিতাবাঘের ব্যাপারটা ঠিক বুঝতে পারছি না। যদিও মানুষগুলো কেমন একটা করছে যেন, অতটাও বন্ধুত্বপূর্ণ নয়।” ভিডিওয় দেখা যায়, চিতাবাঘটি লাফিয়ে উঠে একজনের হাত আঁকড়ে ধরেছে। তিনি হাত ছাড়ানোর জন্য এমন ভাবেই চিতাবাঘটিকে সরাচ্ছেন, সে বেচারা মাটিতে গড়াগড়ি খাচ্ছে।

ঘটনাস্থল হিমাচলপ্রদেশের তীর্থন ভ্যালি। ভিডিওটি পোস্ট করেছেন ফরেস্ট সার্ভিস অফিসার প্রবীণ কাসওয়ান। তিনি প্রায়ই বন্যপ্রাণ নিয়ে নানা রকম ছবি ও ভিডিও পোস্ট করে থাকেন টুইটারে। বেশিরভাগই সচেতনতামূলক, কোনওটা আবার মজার। এই ভিডিওটি তিনি গতকাল সন্ধেয় পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন। এদিনের ভিডিও দেখে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, চিতাবাঘটির ধরন দেখে মনে হচ্ছে, সে হয়তো আগে মানুষের সংস্পর্শে এসেছে, থেকেছে। সে কারণেই মানুষের প্রতি তার এই বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণ।

প্রসঙ্গত, ভারতের বন্যপ্রাণ আইনে চিতাবাঘ পোষা বেআইনি। এ কথা বলে আজ সকালে ফের ওই চিতাবাঘেরই আরও একটি ভিডিও পোস্ট করেন প্রবীণ কাসওয়ান। সেখানেও দেখা যাচ্ছে, অন্য একদল টুরিস্টের সঙ্গে একই রকম বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণ করছে চিতাবাঘটি।

এই পোস্টটি রিটুইট করেছেন আর এক সিনিয়র আইএফএস অফিসার রমেশ পাণ্ডে। তিনি সেখানে লিখেছেন, “চিতাবাঘটি কোনও মানুষের হেফাজত থেকে পালিয়ে এসেছে মনে হয়। তদন্ত করে দেখা দরকার। বন্যপ্রাণীকে পুষে রাখলে তাদের আচরণে এরকম অস্বাভাবিক বদল ঘটে অনেক সময়ে। এটা কিন্তু উদ্বেগের বিষয়।”

তবে সে যাই হোক না কেন, চিতাবাঘের এমন খেলা দেখে বেশ আনন্দ পেয়েছেন টুইটারিয়ানরা। কয়েক হাজার বার ভিডিওটি দেখা হয়ে গেছে ইতিমধ্যেই। অসংখ্যবার রিটুইটও হয়েছে পোস্টটি। ভরে গেছে লাইক-কমেন্টে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More