ভুয়ো খবর ও গুজব রুখতে এবার আরও কড়া হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ, যথেচ্ছ মেসেজ ফরোয়ার্ডে নিষেধাজ্ঞা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: যথেচ্ছ মেসেজ ফরোয়ার্ডে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করল হোয়াটসঅ্যাপ। করোনাভাইরাস মহামারী নিয়ে যাতে কোনও ভুয়ো খবর বা গুজব সহজে না ছড়ায়, তা নিশ্চিত করতে এই ব্যবস্থা। আগে যেখানে একটি মেসেজ একসঙ্গে পাঁচ জনকে পাঠানো যেত, এবার তা যদি ‘ফরোয়ার্ডেড মেসেজ’ হয়, তবে তা এক জনের বেশি কাউকে পাঠানো যাবে না।

গত কয়েক মাস ধরেই করোনা-আতঙ্কে জর্জরিত বিশ্বের একটা বড় অংশ। এর উপরে বিভ্রান্তি বাড়িয়েছে নানা ভুয়ো মেসেজ। উপযুক্ত তথ্যপ্রমাণ ও গবেষণা ছাড়াই ছড়িয়ে গিয়েছে নানা তত্ত্ব ও তথ্য। আর এ ছড়ানোর মাধ্যম হিসেবে মূলত হোয়াটসঅ্যাপ বেশি করে ব্যবহৃত হয়েছে। ফলে এই নিয়ে সতর্ক রয়েছে পুলিশ প্রশাসন। অভিযোগও গ্রহণ করা হয়েছে একাধিক, ব্যবস্থাও নেওয়া হয়েছে প্রয়োজনে।

তবে তা যে যথেষ্ট নয়, তার প্রমাণও মিলেছে বারবার। গুজব রুখতে নাগরিকদের সতর্ক থাকতে অনুরোধ করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও। বাংলাতেও বারবার একই কথা বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে এরমধ্যেই করোনা-আতঙ্ক বাড়িয়ে ছড়িয়েছে ভুয়ো মেসেজ।

তাই সারা বিশ্বে এবার করোনা পরিস্থিতিনিয়ে ভুয়ো মেসেজ ছড়িয়ে দেওয়া বন্ধ করতে উদ্যোগী হল খোদ হোয়াটসঅ্যাপই।

জানা গেছে, কোনও ফরোয়ার্ডেড মেসেজ অর্থাৎ অন্য কারও থেকে পাওয়া মেসেজ শুধু একটি চ্যাটেই ফরোওয়ার্ড করার যাবে এখন থেকে। আগে একসঙ্গে ৫টি চ্যাটে মেসেজ ফরোয়ার্ড করা যেত। ৭ এপ্রিল থেকেই এই নিয়ম কার্যকর হবে বলে জানিয়েছে মার্ক জুকারবার্গের সংস্থা। তবে এই নিয়ম শুধু করোনা আক্রান্ত এই সময়েই বজায় থাকবে নাকি পরেও এমনই চলবে, তা জানা যায়নি।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More